• শিরোনাম

    স্টাফ রিপোর্টার | সোমবার, ০৫ এপ্রিল ২০২১ | পড়া হয়েছে 32 বার

    apps

    করোনা ভাইরাস একটি বৈশ্বিক সমস্যা। বৈশ্বিক এ সমস্যা বাংলাদেশেও সংকট সৃষ্টি করেছে। এ সংকট উত্তরণে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধাভাজন সভাপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা তাঁর অক্লান্ত পরিশ্রম, মেধা, দক্ষতা ও অদম্য নেতৃত্বের মাধ্যমে সর্বাত্মক প্রতিরোধ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সম্মানিত সভাপতি দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের প্রতিনিয়ত উজ্জীবিত করছেন স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে এ সংকট উত্তরণে মানুষের পাশে থাকার জন্য। এ প্রেক্ষিতে বাংলাদেশে বিদ্যমান করোনা ভাইরাস সংকট উত্তরণে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধাভাজন সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ উপকমিটি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব ওবায়দুল কাদের এমপির নির্দেশনায় এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীর তত্ত¡াবধানে বিভিন্ন সময়ে ধানমন্ডিস্থ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতির কার্যালয় থেকে ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্যবৃন্দের অক্লান্ত পরিশ্রমে বিভিন্ন জেলা আওয়ামী লীগ, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধির কাছে করোনা ভাইরাস সংকট উত্তরণে বিশেষ প্রচারনার অংশ হিসেবে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী এবং খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
    সারসংক্ষেপ
    ১। করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের প্রায় শুরু থেকেই অর্থাৎ ১৭ মার্চ ২০২০ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী থেকেই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী হিসেবে উন্নতমানের হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক বিতরণ শুরু হয়েছে।
    ২। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক জনাব ওবায়দুল কাদের এমপি শুরু থেকেই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ কাযক্রমে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি ২৯ র্মার্চ, ১ এপ্রিল, ৬ এপ্রিল, ২৩ এপ্রিল, ৩০ এপ্রিল, ৭ মে, ১৫ মে, ১৭ মে, ২২ মে, ৯ জুলাই, ২৪ জুলাই, ৩০ জুলাই, ৮ আগস্ট, ১৯ আগস্ট, ৪ সেপ্টেম্বর, ২৭ সেপ্টেম্বর, ৪ অক্টোবর, ২৭ নভেম্বর, ৪ ডিসেম্বর, ১১ ডিসেম্বর, ৬ জানুয়ারি ২০২১, ৪ এপ্রিল ২০২১ জনাব ওবায়দুল কাদের এর সরাসরি এবং ভারচুয়াল উপস্থিতিতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী, খাদ্য সামগ্রী ও চিকিৎসা সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এছাড়াও বিতরণ অনুষ্ঠানসমূহে প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী এমপি, জাহাঙ্গীর কবীর নানক, আবদুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মাননীয় তথ্য মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জনাব আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাস, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, উপ-দপ্তর সম্পাদক মো. সায়েম খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
    ৩। প্রতিটি জেলায় ৩০২৪ পিছ বিশেষ ধরনের এন্টিসেপটিক সাবান, দলীয় কার্যালয়ে ব্যবহারের জন্য ২০টি ১০০ এম এল এর উন্নতমানের হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও ১০০ টি সার্জিকাল মাস্ক বিতরণ করা হয়। এছাড়াও উপজেলা সমূহে ১৪৪০টি করে বিশেষ ধরনের এন্টিসেপটিক সাবান, দলীয় কার্যালয়ে ব্যবহারের জন্য ১৫টি ১০০ এম এল এর উন্নতমানের হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও ৫০টি সার্জিকাল মাস্ক বিতরণ করা হয়।
    ৪। এ পর্যন্ত ৫৭টি জেলা, ১৫০টিরও অধিক উপজেলা, ভাতৃপ্রতিম ২০টি সংগঠন, ৫১টি সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের মাঝে এ সকল সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এছাড়াও ১৫টি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানে পিপিই, ১১টি প্রতিষ্ঠানে ইনফ্রারেড থার্মোমিটার এবং টুঙ্গীপাড়া, কোটলিপাড়া ও গোপালগঞ্জ সদরে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়। বিশেষ করে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট, জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট, সায়েরা খাতুন মেডিকেল হাসপাতাল, গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল, টুঙ্গীপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, কোটালী পাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, চাদপুরের বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী হাসপাতাল, সাতকানিয়া ও লোহাগড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সহ বিভিন্ন হাসপাতালে পিপিই ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
    ৫। বাংলাদেশের বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকা, খ্যাতনামা টেলিভিশন চ্যানেল, অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, ফটোজার্নালিস্ট, ইলেকট্রনিক মিডিয়া ক্যমেরাম্যান যারা জীবনের ঝুকি নিয়ে প্রতিনিয়ত করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের বিরুদ্ধে সচেতনতামূলক কাযক্রম পরিচালনা করছেন তাদের মাঝে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
    ৬। বাংলাদেশের জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম মসজিদ, ঢাকেস্বরী মন্দির, মিরপুর ক্যাথলিক চার্চ, তেজগাও চার্চ, জাতীয় বৌদ্ধ মন্দির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ, ইসলামিক ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে যেখানে অধিক পরিমানে লোক সমাগমের সম্ভাবনা থাকে সেইসব প্রতিষ্ঠানে ইনফ্রারেড (থারমাল) থার্মোমিটার, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
    ৭। গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল, নারায়নগঞ্জ ৩০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল ও গাজীপুর সদর হাসপাতালে করোনা ভাইরাস চিকিৎসার জন্য নন-ইনভেসিভ ভেনটিলেটর প্রদান করা হয়েছে।
    ৮। এ পর্যন্ত ২৫ লক্ষাধিক মাস্ক, এক লক্ষাধিক ১০০ এম এল এর উন্নতমানের হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ১২লক্ষাধিক পিছ বিশেষ ধরনের ক্যামিক্যালযুক্ত এন্টিসেপটিক সাবান বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও প্রায় ৩০ হাজার পিপিই, দুই শতাধিক ইনফ্রারেড থার্মোমিটার বিতরণ করা হয়েছে।
    ৯। প্রথম দফায় খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল ১০ কেজি চাল, ২ কেজি আটা, ২ লিটার সোয়াবিন তেল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ছোলাবুট, ১ কেজি লবন, ১ কেজি মুসুরি ডাল, বিশেষ ধরনের এন্টিসেপটিক সাবান ৩ পিছ। প্রায় ১৫০০ পরিবারের মাঝে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
    ১০। দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ দফায় খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল ৫ কেজি চাল, ১ লিটার সোয়াবিন তেল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ছোলাবুট, ১ কেজি লবন, ১ কেজি মুসুরি ডাল, বিশেষ ধরনের এন্টিসেপটিক সাবান ৩ পিছ। প্রায় ৭২০০ পরিবারের মাঝে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
    ১১। পঞ্চম দফায় খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল ৫ কেজি চাল, ১ লিটার সোয়াবিন তেল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ছোলাবুট, ১ কেজি লবন, ১ কেজি মুসুরি ডাল, ২ প্যাকেট উন্নত মানের লাচ্ছা সেমাই, ১ কেজি চিনি, বিশেষ ধরনের এন্টিসেপটিক সাবান ৩ পিছ। প্রায় ২৫০০ পরিবারের মাঝে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
    ১২। এ পর্যন্ত ৪০ হাজারেরও বেশী পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।
    ১৩। এছাড়াও সামাজিক কল্যাণের অংশ হিসেবে করোনা ভাইরাস সংকটকালীন সময়ে মানুষের সার্বক্ষনিক চিকিৎসা সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির উদ্যোগে স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা এবং ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীর যৌথ তত্ত¡াবধানে প্রায় ১০০ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সমন্বয়ে চালুকৃত চিকিৎসা সেবা কার্যক্রমে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মানুষ চিকিৎসাসুবিধা প্রাপ্ত হচ্ছে।
    ১৪। স্বাস্থ্যসেবা সাধারণের মাঝে সহজলভ্য করার লক্ষ্যে হটলাইন চালু করা হয়েছে যার নম্বর ০৯৬৭৮৮৮৯৮৮৮
    ১৫। বিভিন্ন জেলা হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ পযন্ত শতাধিক অক্সিজেন কনসেনট্রেটর ও ২০ টি হাই-ফ্লো ন্যাসাল ক্যানোলা সরবরাহ করা হয়েছে।
    ১৬। ৫০১৬ পিছ সানসিল্ক শ্যাম্পু, ১৭৭৬০ পিছ আয়ুস ফেস ওয়াস, ১০ হাজার পিছ আয়ুস ক্রিম, ২০ সহস্রাধিক পন্ডস ক্রিম, দুই হাজার পিছ পিম্পল ক্রিম, ২৬৪ পিছ পন্ডস ফেস ওয়াস, ১০ হাজার পিছ ফেয়ার এন্ড লাভলী সাবান বিতরণ করা হয়েছে।
    ১৭। কৃষকদের মাঝে বিতরণের জন্য প্রায় ১৫ হাজার বিঘায় রোপনযোগ্য শাক-সব্জীর বীজ বিতরণ করা হয়। বীজের মধ্যে ছিল পালং শাক, লাল শাক, ডাটা শাক, পুই শাক, লাউ, মিষ্টি কুমড়া, টমেটো, বেগুন

    ১৮। প্রতিবন্ধীদের মাঝে ট্রাই সাইকেল, রানার, বড় জিম বল, হারমোনিয়াম, তবলা সেট, বড় জাম্পিং সেট ৫০ ইঞ্চি, হ্যান্ড ডাম্বেল, ডিম্বাকৃতি কাটা ছোট বল, পাজেল সেট, সফট বল সেট

    ১৯। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা, বঙ্গবন্ধু অভিযাত্রী দলের সদস্য জনাব মো. জহিরউদ্দিন, জনাব বিপ্লব মন্ডল ঝন্টু ও প্রবীর গোস্মমীর অকাল প্রয়ানে তাদের পরিবারের সদস্যদের প্রত্যেককে পাঁচ লক্ষ টাকা অনুদান হিসেবে প্রদান করা হয়।

    ২০। সহযোগী সংগঠনের মাধ্যমে প্রায় দুই লক্ষাধিক উন্নতমানের কাপড়ের মাস্ক, উন্নতমানের সার্জিক্যাল মাস্ক বিতরণ করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের প্রতিনিধিদের মাধ্যমেও উন্নতমানের কাপড়ের মাস্ক, উন্নতমানের সার্জিক্যাল মাস্ক বিতরণ করা হয়। উপরন্তু চিকিৎসক নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে উন্নতমানের এন ৯৫ ও কেএন ৯৫ মাস্ক বিতরণ করা হয়।

    ২১। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শুভ জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীর সার্বিক তত্বাবধানে অসা¤প্রদায়িক চেনার এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করা হয়। শুভ জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এতিম ও অনাথ শিশুদের মাঝে উন্নতমানের বস্ত্র, খাবার ও করোনা ভাইরাস সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করার মধ্য দিয়ে দেশের ৮ টি বিভাগীয় শহরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উৎযাপন করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি।

    বুধবার ( ১৭ মার্চ) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১০১ তম জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশুদিবস উপলক্ষে বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে দোয়া মাহফিল ও প্রার্থনা সভার আয়োজন করে ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি। রাজধানীর আজিমপুরে অবস্থিত এতিমখানার মাঠে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনার পাশাপাশি দেশ-জাতি ও বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সদস্যদের জন্য বিশেষ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। দোয়া শেষে এতিমদের মাঝে উন্নতমানের পোষাক, উন্নতমানের খাবার ও করোনা ভাইরাস সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়। গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শ্রীরামকান্দি চরপাড়া মদিনাতুল উলুম মহিলা মাদ্রাসা ও এতিম খানা, কুশলী শামসুল উলুম মাদ্রাসা ও এতিমখানা, কোটালীপড়ার কুরপালা মাদ্রাসা এতিমখানাসহ ৮ টি মাদ্রাসা ও এতিমখানায় কোরআন খতম-দোয়া মাহফিল এবং এতিমদের মাঝে খাদ্য-বস্ত্র বিতরণ করা হয়।চট্টগ্রামের কদম মোবারক এতিমখানায়, রাজশাহী বিভাগের জামেয়া ইসলামিয়া শাহ মাখদুম মাদ্রাসায়, খুলনা বিভাগের আলিয়া মাদ্রাসা এতিমখানায়, সিলেট বিভাগের জামেয়া হোসাইনিয়া ইসলামিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায়, বরিশাল বিভাগের চাঁদমারি এছহাকিয়া মোহাম্মদী হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায়, ময়মনসিংহ বিভাগের ফোরকানিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায়, রংপুরের পীরগঞ্জের চতরা ইমাম বোখারী হিজবুল কোরআন এতিম খানা ও মাদ্রাসা, ইমাম বোখারী এতিম খানা ও মহিলা মাদ্রাসা, শিশু সদন এতিম খানা, সোনাতলা গোবিন্দপাড়া শাহ ইসমাইল গাজী রহমতুল্লাহ হাফিজিয়া মাদ্রাসা, পল্লী শিশু ক্লিনিক এতিম খানায় উন্নতমানের খাবার ও উন্নতমানের বস্ত্র বিতরণ করা হয়।

    জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ১৮ মার্চ ২০২১ ঢাকার তেজগাওয়ের বটমলি অরফানেজ হোমসের খ্রীষ্টান স¤প্রদায়ের অনাথ শিশুদের হাতে, ১৯ মার্চ ‘ঢাকা অরফানেজ সোসাইটি’ সনাতন স¤প্রদায়ের অনাথ আশ্রমের শিশুদের হাতে এবং ২০ মার্চ ২০২১ ঢাকার সবুজবাগের ধর্মরাজিক বৌদ্ধ মহাবিহারে উন্নতমানের বস্ত্র, খাবার ও করোনা ভাইরাস সুরক্ষা সামগ্রী তুলে দিয়েছে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি।

    বাংলাদেশ সময়: ১০:১০ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৫ এপ্রিল ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    শুভ জন্মদিন অনন্ত

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

    দরপত্র বিজ্ঞপ্তি

    ০৫ নভেম্বর ২০২০

    আর্কাইভ