মঙ্গলবার ১৮ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

>>

সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের হিসাবরক্ষকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার , সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহে বাঁধা দিলেন নির্বাহী প্রকৌশলীঃ অপসারনের দাবীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

টি এম এ হাসান, সিরাজগঞ্জ   |   বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২   |   প্রিন্ট

সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের হিসাবরক্ষকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ,  সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহে বাঁধা দিলেন নির্বাহী প্রকৌশলীঃ অপসারনের দাবীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদ অফিসের হিসাব রক্ষক সুরুজিৎ কুমার মুজুদার (৪২) এর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে সিরাজগঞ্জ শহরের জেলা পরিষদের ডাক বাংলো থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সুরুজিৎ কুমার মুজুদার পাবনা পৌর এলাকার সুধির চন্দ্র মুজুমদারের ছেলে ও সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদ অফিসের হিসাব রক্ষক।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (অপারেশন) সুমন কুমার দাস বিষয়টি নিশ্চিত জানান, সকাল সাড়ে নয়টায় দিকে ঘরের ভিতরে ঝুলন্ত মরদেহ দেখে ডাক বাংলোর কেয়ারটেকার শাহন মিয়া পুলিশকে খবর দেয়। আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করি। নিহত সুরুজিৎ কুমার মুজুদারের গলায় আঘাতের চিহৃ ছিল বলে তিনি জানান। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে বলে তিনি জানান।

এদিকে ঘটনার পর থেকে জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুন নাহার ডাক বাংলো প্রধান গেট বন্ধ রেখেছিলো। সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহের জন্য নানা বাধা সৃষ্টি করেছে। তিনি সাংবাদিকদের তথ্য দিতে বাঁধা প্রদান করেন এবং সাংবাদিকের সাথে খারাপ আচারণ করেন।

এক পর্যায়ে সাংবাদিকদের সাথে জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুন নাহারের কথা কাটাকাটির পরে তিনি সাংবাদিকদের নিয়ে নানা বাজে মন্তব্য করেন। এসময় ঘটনাস্থলে পুলিশ, পিবিআই ও ডিএসপির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ বিশ্বাস ঘটনাস্থলে আসলে তিনি সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহের সহযোগিতা করেন।

জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুন নাহার বলেন, আপনারা পরে আসে। পুলিশের অনুমোতি নিয়ে আসে। আপনার এই আলামত নষ্ট করার জন্য এখানে আসেছেন। ফুটেজ প্রয়োজন হলে পুলিশের নিকট থেকে নেন। ঘরের ভিতরে ঢুকতে পারবেন না। এই বলে তিনি সাংবাদিকদের উপর চরাও হন এবং সাংবাদিকদের নিয়ে খারাপ মন্তব্য করেন।

এ বিষয়ে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ বিশ্বাস বলেন, এটা একটা অনাঙ্কাখিত ঘটনা। জেলা পরিষদ ডাক বাংলোতে এই ধরণের ঘটনা কোন দিন ঘটে নাই। প্রশাসনের লোকজন এসেছে তার তদন্ত করে বিষয়টি দেখছে। জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুন নাহার সাংবাদিকদের সাথে দূর্ব্যবহার সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার সামনেই তিনি এই সব কথা বলছেন। সাংবাদিকদের সাথে এমন ব্যবহার করা ঠিক হয়নি বলে তিনি জানান।

সাংবাদিকদের সাথে খারাপ আচারণের কারণে সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হেলাল আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক জাকিরুল ইসলাম সান্টুর নেতৃত্বে জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ এর নিকট কামরুন নাহারের বিরুদ্ধে মৌখিক অভিযোগ করেন। পরে সাংবাদিকরা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে কামরুন নাহারের অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন করেন।

জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ বলেন, এর আগেই তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ পেয়েছিলাম। আপনাদের বিষয়ে আমি মন্ত্রণালয় বরাবর তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করবো।

Facebook Comments Box

Posted ১০:১৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২

dainikbanglarnabokantha.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

সম্পাদক

রুমাজ্জল হোসেন রুবেল

বাণিজ্যিক কার্যালয় :

১৪, পুরানা পল্টন, দারুস সালাম আর্কেড, ১০ম তলা, রুম নং-১১-এ, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০১৭১২৮৪৫১৭৬, ০১৬১২-৮৪৫১৮৬

ই-মেইল: newsnabokantha@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

design and development by : webnewsdesign.com