• শিরোনাম

    সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে ত্রিমুখী ও পৃথক সংঘর্ষে দুজনের মৃত্যু

     টি,এম,এ হাসান, সিরাজগঞ্জ | সোমবার, ০৩ মে ২০২১ | পড়া হয়েছে 58 বার

    সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে ত্রিমুখী ও পৃথক সংঘর্ষে দুজনের মৃত্যু

    সিরাজগঞ্জের হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের তাড়াশ থানাধীন মহিষলুটি বাজার ও ৯নং ব্রিজ এলাকায় মোট ৫টি ট্রাক ও পাভার্ড ভ্যানের দুট পৃথক সংঘর্ষে দুই জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও কয়েকজন। বিষয়টি মহিষলুটি থেকে হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক মো. আব্দুল্লাহেল বাকী ও ৯নং ব্রিজ এলাকা থেকে হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক মো. জাহিদুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন। দূর্ঘটনায় মহিষলুটিতে নিহত নাম পরিচয় পাওয়া গেলেও আরেকজনের নাম পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। সংবাদপত্রের গাড়িতে থাকা নিহত ব্যাক্তির নাম মো. শাহিন হাসান (৪৪)। তিনি জেলার উল্লাপাড়া উপজেলার পাগলা মধ্যপাড়া গ্রামের সলিমুদ্দিন এর ছেলে ও একটি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করতেন বলে জানা গেছে। হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের ৯নং ব্রিজ এলাকা থেকে হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক মো. জাহিদুল ইসলাম জানান, ভোর ৫টার দিকে একটি ট্রাক ও জননী কুরিয়ার সার্ভিসের একটি কাভার্ড ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে জননী পরিবহনের একজন মারা যান ও কয়েকজন আহত হন। তবে মৃতের নাম পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের মহিষলুটি থেকে হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক মো. আব্দুল্লাহেল বাকী জানান, ভোর সোয়া ৫টার দিকে হাটিকুমরুল থেকে রাজশাহী গামী সংবাদপত্র পরিবহনের একটি গাড়ি এখানে পত্রিকা নামিয়ে রওনা দিতেই পিছন থেকে একটি পাথর খোয়া বোঝাই ট্রাক ধাক্কা দিলে সামনে থাকা ডাউলের একটি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে দুমড়ে মুচড়ে যায়। এসময় সংবাদপত্রের গাড়িতে থাকা একজন ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি ঘটনাস্থলেই মারা যান ও একজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছেন ফায়ারসার্ভিস কর্মীরা। মহিষলুটি এলাকার স্থানীয় ব্যাবসায়ী গোপাল চন্দ্র ঘোষ বলেন, মৃতদেহ এখনো এখানেই আছে এবং সম্পুর্ন রাস্তা জুড়ে ডাউল ও পাথর খোয়া পড়ে আছে। পিছন থেকে পাথর খোয়া ভর্তি ট্রাকটি সংবাদপত্রের গাড়িকে সজোড়ে আঘাত করলে সংবাদপত্রের গাড়িটি সামনে থাকা ডাউল ভর্তি ট্রাকে সজোরে আঘাত করলে তিনটি ট্রাকই ক্ষতিগ্রস্ত হয় ও সংবাদপত্রের গাড়িটি একদম দুমড়ে মুচড়ে যায়। সিরাজগঞ্জ ২৫০শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আর.এম.ও) মো. ফরিদুল ইসলাম বলেন, আমি এখনো এবিষয়ে কিছু জানিনা। তবে খোঁজ নিয়ে দেখবো।

    বাংলাদেশ সময়: ৩:১৭ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৩ মে ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ