• শিরোনাম

    শরীয়তপুরে শতাধিক স্পটে মাদক বিক্রির অভিযোগ,জড়িত প্রভাবশালী কিছু রাজনৈতিক নেতকর্মী। প্রশাসনের দায়সাড়া অভিযান।

    শরীয়তপুর প্রতিনিধি ॥ | মঙ্গলবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | পড়া হয়েছে 96 বার

    apps

    শরীয়তপুর জেলা শহরসহ ৬টি উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন এলাকায় শতাধিক স্পটে মাদক বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। এর সাথে কিছু রাজনৈতিক অসাধু নেতা কর্মী জড়িয়ে পড়ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এলাকার বিভিন্ন হাট বাজারে মাদক ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট গড়ে তুলে অবাধে বিক্রি করছে মাদক অসাধু রাজনৈতিক নেতা কর্মীদেও ছত্র ছায়ায়। এ যেন দেখার কেউ নেই। এর ফলে বিপদগামী হচ্ছে স্কুল কলেজের শিক্ষাথী সহ উঠতি বয়সী যুব সমাজ। প্রশাসন বলছেন , ডিজিটাল হওয়ার কারনে কৌশলে বেচে যাচ্ছে প্রকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা। দিন দিন বেড়েই চলছে মাধকের প্রভাব।
    শরীয়তপুর জেলার বিভিন্ন থানা ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, শরীয়তপুর সদর উপজেলার মনোহর বাজার, বুড়িরহাট, গঙ্গনগর বাজার, শৌলপাড়া বাজার, চিকন্দী, জেলা সদরের প্রেমতলা বাগিয়া, পাকার মাথায়, পৌর ঈদগা রোড, নড়িয়া উপজেলার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পরিত্যক্ত বাসভবন, কাঞ্চনপাড়া বাজারের দক্ষিন মাথায়, পঞ্চপল্লি গুলমাইজ রোড়, পাঁচক বউবাজার, গড়িসার, পাগলার মোড়. চাকধ বাজার, শুরেশ^র বাংলাবাজার, চন্ডিপুর লঞ্চঘাট, চান্দনী দুলুখন্ড সরকারী প্রাথমিক বিদ্যলয়ের পাশে, কার্তিকপুর, ভেদরগঞ্জ উপজেলার আলু বাজার ফেরীঘাট, সখিপুর, ডি এম খালী, তারাবুনিয়া, কাসেম বাজার, চরকুমালিয়া বাজার, সত্যপুর বড় ব্রীজ, গোসাইরহাট ধীপুর পল্লীবিদ্যুৎ এলাকা, দাসের জঙ্গল খেয়াঘাট, চর জুসর গাও ,চর ধীপুর ,নতুন বাজার ,নাগের পাড়া বাজার, আনন্দ বাজার, গোসাইরহাট খাদ্যগুদাম এলাকায়, জাজিরা টিএনটি মোড়, হেলিপেইড লোড, মাঝিরঘাট, কাজিরহাট, বিলাশ বাজার, সফিকাজির মোড়, ডামুড্যা উপজেলায় হাসপাতাল রোড, ডামুড্যা বাজার ধান হাটা, খাদ্য গুদাম রোডসহ প্রায় শতাধিক স্পটে মাদক বেচা কেনা হচ্ছে। সন্ধ্যা বা দিনের বেলায় চলে এসব স্পটে মাদক বিক্রি। পাশর্^বতী চাদঁপুর জেলা থেকে বিভিন্ন পরিবহন করে ও নৌযান দিয়ে ভেদরগঞ্জের আলু বাজার ফেরি ঘাট দিয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা শরীয়তপুর সদর সহ বিভিন্ন এলাকায় পৌছে দেয়। এসব স্পট থেকে নিয়মিত পুলিশ মাসোহারা নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠছে।
    অপর দিকে পাশর্^বর্তী জেলা বরিশার থেকে আবু পুর ফেরি ঘাট ও কুচাই পট্রি এলাকা দিয়ে ও দেদারছে মাদক আসছে আমাদেও শরীয়তপুর জেলায়।
    সম্প্রতি শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানা পুৃলিশ বালার হাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদারীপুর শিপচর এলাকার ইনসান বেপারীর ছেলে রাজু বেপারী(৩৫), একই এলাকার মৃতু আজিজ মাদবরের ছেলে মনজু মাদবর (৪০) একই এলাকার আলতাফ মোল্ল্যার ছেলে হাফিজুর রহমান মোল্ল্যা(৩৫)কে ৩ কে ২৬ কেজি গাজাসহ গ্রেফতার করেন।
    গোসাইরহাট থানা পুলিশ গোসাইরহাট কুচাই পট্টি এলাকার থেকে ৮ মামলার আসামী মাদক ব্যবসায়ী রাসেল মিয়া(৩০), একই এলাকার ৩টি মামলা আসামী ও মাদক ব্যবসায়ী মান্নান সরদারকে গ্রেফতার করে কোটে প্রেরন করে।
    এ ব্যাপারে নড়িয়া উপজেলা রাকিব মিয়া, আমজাদ বেপারী ও জলিল সরদার বলেন, থানায় অভিযোগ দেয়ার পরও থানা পুলিশ অপরাধিদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় অপরাধিরা প্রকাশ্যে এলাকায় অবস্থান করছেন। প্রতিদিনই বাশতলা মোড়, বৈশাখী পাড়া,চান্দনী, বাড়ৈ পাড়া এলাকায় মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের আনাগোনা দেখা যায়।
    কিন্তু প্রশাসনিক ভাবে মাদক ব্যবসায়ীদের দমনের কোন উদ্যোগ লক্ষ করা যাচ্ছে না।
    গোসাইরহাট উপজেলার নাম না প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতা বলেন , আমাদেও এখানে কিছু অসাধু নেতা কর্মী মাদক ব্যাবসার সাথে সরাসরি জড়িত । কিন্তু প্রশাসন তাদেও কিছু বলে না।
    এ ব্যাপারে শরীয়তপুর জজ কোটের আইনজীবি এ্যডভোকেট আব্দুল মান্নান তালুকদার বলেন, শরীয়তপুরে নেশাগ্রস্থদের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। মাদকাসক্ত ব্যক্তি নেশার খরচ যোগানোর জন্য নানা রকম সমাজ বিরোধী কাজে লিপ্ত হয়ে পড়েছে।
    ভেদরগঞ্জ তারাবুনিয়ার এলাকার রহিম সরদার, আলী বেপারী বলেন, মাদকাসক্তদের উৎপাতে এলাকায় আমাদের বসবাস করাই দায় হয়ে পড়েছে। এদের বিরুদ্ধে প্রশাসন কোন ব্যবস্থা গ্রহন করছেনা বলে তিনি অভিযোগ করেন তারা।
    এ ব্যাপারে সখিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান হাওলাদার বলেন, আমরা কয়েক দফা মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়েছি। এতে আমরা ২৬ কেজি গাজা সহ ৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে কোটে প্রেরন করেছি।
    এ ব্যাপাওে নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব আলম বলেন , নড়িয়া থানায় গাজা তেমন নেই । এখানে ইয়াবার খুব ছড়াছড়ি । ডিজিটাল হয়ে যাওয়ার কারনে আমরা তাদেও গ্রেফতার করতে পারছি না। এর কারন হলো যিনি ইয়াবা বিক্রি করছেন তিনি বহন করছেন না। শিশু অথবা অটো রিক্সা ওলাদেও কে ব্যবহার করছেন । ফলে ইয়াবা ব্যবসায়ীদেও আটক করলে ও তাদেও কাছে ইয়াবা পাচ্ছি না।

    বাংলাদেশ সময়: ১০:৩৭ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ