• শিরোনাম

    রাজশাহী মহানগর ইমাম ও মোয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যদের মধ্যে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ

    ইউসুফ আলী চৌধুরী-রাজশাহী প্র্রতিনিধিঃ | রবিবার, ১৮ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 40 বার

    রাজশাহী মহানগর ইমাম ও মোয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যদের মধ্যে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ
    apps

    সারাদেশব্যাপি করোনা সংক্রমন ও মৃত্যুর মিছিল কোন ভাবেই কমছেনা। কিন্তু জনগণ এখনো করোনা ভাইরাসকে গুরুত্ব দিচ্ছেনা। তারা সরকারী বিধিনিষেধ মানছেনা। এমনকি ধর্মীয় উপাসনালয় গুলোতেও বেশীরভাগ জনগণ মাস্ক পরেনা। বাংলাদেশ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ একটি দেশ। এদেশে হাজার হাজার মসজিদ ও মাদ্রাসা। ইমামগণ ইচ্ছা করলে মসজিদের খুৎবায় কিংবা প্রতিটি ওয়াক্ত নামাজে করোনা বিষয়ে সচেতনতামূলক পরামর্শ দিতে পারেন। সেই সাথে মাস্ক ছাড়া মসজিদের মুসল্লীদের প্রবেশ করতে নিরুৎসাহিত করতে ইমামগণ বলিষ্ট ভূমিকা রাখতে পারেন। বোরবার(১৮ জুলাই)দুপুর ১টায় রাজশাহী মহানগর ইমাম ও মোয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যদের মধ্যে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল এই কথাগুলো বলেন।

    তিনি বলেন, এখনো অনেক মসজিদে মুসল্লী ও খোদ ইমাম, মোয়াজ্জিন মাস্ক পরেন না। তাঁরাই যদি মাস্ক না পরেন তাহলে মুসল্লীদের কি পরামর্শ দেবেন তারা। তিনি প্রতিটি ইমাম, মোয়াজ্জিন ও খতিবদের মাস্ক পরার আহবান জানান। তিনি বলেন, সরকারের পাশাপাশি করোনা সচেতনতায় ইমামগণ গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন। প্রধান অতিথি রাজশাহীর প্রতিটি মসজিদে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরতে বাধ্য করতে ইমামদের দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহন করার পরামর্শ দেন। জনগণের জন্য ধর্ম, জনগণ যদি না বাঁচে তাহলে ধর্ম পালন করবে কারা উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় করোনা রুখতে পারবেনা। নিজেকে এবং পরিবারের সদস্য এবং দেশের মানুষকে বাঁচাতে নিজেকেই সচেতন হতে হবে। তিনি বলেন, রাজশাহীতে করোনা বৃদ্ধি পাওয়ায় জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, রাসিক, অন্যান্য আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্য ও বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয় মাঠে কাজ করে যাচ্ছে। জনগণকে বিভিন্নভাবে সচেতন করার চেষ্টা করছেন তাঁরা। তিনি বলেন সামনে ঈদুল আযহা।

    ঈদের নামজে যেন কেউ মাস্ক ছাড়া মসজিদে না আসে এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে নামাজ আদায় করেন এর ব্যবস্থা ইমাম ও মসজিদ ও ঈদগাহ কমিটিকে নিতে হবে। পূর্ব থেকে মাইকে ঘোষনা দেয়ার পরামর্শ দেন তিনি। সেইসাথে কোরবানীর বর্জ যেন যত্রতত্র না ফেলে রাখে সে বিষয়ে জনগণকে সচতেন করার জন্য ইমামদের অনুরোধ করেন জেলা প্রশাসক। এছাড়াও করোনা থেকে বাঁচতে সবাইকে মাস্ক ব্যবহার করার আহবান জানান তিনি। বক্তব্য শেষে উপস্থিত চুরাশি জন ইমাম- মোয়াজ্জিন এর মধ্যে চার হাজার টাকা করে চেক বিতরণ করেন। রাজশাহী জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে রাজশাহী জেলা প্রশাসন ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়ের আয়োজনে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ শরিফুল হক এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহীন আক্তার রেনী, ইসলামী ফাউন্ডেশন রাজশাহীর সহকারী পরিচালক এ কে এম মুজাহিদুল ইসলাম ও জেলা প্রশাসনের ত্রাণ ও পুণর্বাসন কর্মকর্তা প্রকৌশলী আমিনুল ইসলামসহ জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা ও ইসলামী ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

    বাংলাদেশ সময়: ১১:৩০ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৮ জুলাই ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ