• শিরোনাম

    রাজশাহীর তানোরে আওয়ামী লীগের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত

    তানোর,রাজশাহী প্রতিনিধি: | রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০২২ | পড়া হয়েছে 34 বার

    রাজশাহীর তানোরে আওয়ামী লীগের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত
    apps

    রাজশাহীর তানোরে আজ ২০ই নভেম্বর (রবিবার) বিএনপির সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও স্থানীয় সাংসদকে নিয়ে কটুক্তি করার প্রতিবাদে চাঁন্দুড়িয়া ইউপিতে স্বরণকালের সর্ববৃহৎ প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়েছে।
    জানা গেছে, চাঁন্দুড়িয়া ইউনিয়ন (ইউপি) আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক রাশেদ খান মেনন পাপুলের সঞ্চালনায় চাঁন্দুড়িয়া বাজার মোড়ে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্খিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য মাইনুল ইসলাম স্বপন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শরিফ খাঁন। অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক প্রভাষক আবুল কালাম আজাদ প্রদিপ সরকার, সাংসদ প্রতিনিধি ও উপজেলা চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না, ভাইস-চেয়ারম্যান আবু বাক্কার ও সোনীয়া সরদার, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও তরুণ উদ্যোগক্তা আবুল বাসার সুজন, মুন্ডুমালা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন আমিন, কামারগাঁ ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান ফজলে রাব্বী ফরহাদ, বাধাঁইড় ইউপি আওয়ামী লীগের সম্পাদক ও চেয়ারম্যান আতাউর রহমান,পাঁচন্দর ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন,তালন্দ ইউপি চেয়ারম্যান নাজিমুদ্দিন বাবু, সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, কাউন্সিলর নাহিদ হোসেন, মোহাম্মদ হোসেন মন্টু, ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন আলী প্রামানিক, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক শামসুল ইসলাম, সদস্য সচিব রামিল হাসান সুইট, জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি জিমি কাটার রনি, সম্পাদক প্রকৌশলী মাহাবুর রহমান মাহাম,মোর্শেদুল মোমেনিন রিয়াদ, তানভির রেজাপ্রমুখ।
    এদিকে বক্তাগণ স্থানীয় সাংসদকে নিয়ে বিএনপি নেতা মফিজ উদ্দিনের করা কটুক্তির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তার বক্তব্য প্রত্যাহার ও প্রকাশ্যে ক্ষমা প্রার্থনার আহবান জানিয়ে বলেন, এমপি ফারুক চৌধুরী শহীদ পরিবারের সন্তান ও জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামরুজ্জামান হেনার ভাগ্নে, তিন বারের নির্বাচিত সাংসদ, সাবেক প্রতিমন্ত্রী, জেলার সভাপতি-সম্পাদক, সিআইপি, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি ও জমিদার পরিবারের সন্তান তানোর-গোদাগাড়ীর মানুষের গর্ব। পক্ষান্তরে মফিজ উদ্দিন একজন ধর্ষণকারি, সরকারি গাছ চোর, সার পাচারকারি, দুর্নীতিবাজ ও সমাজের ঘৃনিত ব্যক্তি। তার মতো বিতর্কিত ঘৃনিত ব্যক্তি এমপি ফারুক চৌধুরীর মতো গণমানুষের নেতাকে নিয়ে কটুক্তি করতে পারেন না। তাকে বক্তব্য প্রত্যাহার ও প্রকাশ্যে ক্ষমা প্রার্থনা চাইতে হবে, নইলে জনগণ এর দাঁতভাঙা জবাব দিবেন। প্রতিবাদ সভা শেষে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন ও মফিজের কুশপুত্তলিকা দাহ করে প্রচন্ড ঘৃণা ও প্রতিবাদ জানান।

    বাংলাদেশ সময়: ১১:৩৩ অপরাহ্ণ | রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০২২

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ