• শিরোনাম

    মানিকগঞ্জে ঝুঁকি নিয়ে পার হয় রাস্তা, ব্যবহার করে না ফুট ওভারব্রিজ

    রফিক খান, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: | বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১ | পড়া হয়েছে 133 বার

    মানিকগঞ্জে ঝুঁকি নিয়ে পার হয় রাস্তা, ব্যবহার করে না ফুট ওভারব্রিজ

    মানিকগঞ্জে ঝুঁকি নিয়ে পার হয় রাস্তা, ব্যবহার করে না ফুট ওভারব্রিজ

    ৩ মার্চ ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড ফুটওভারব্রিজ এলাকাটি ব্যস্ততম একটি স্থান। বেশিরভাগ মানুষ ফুটওভারব্রিজ দিয়ে রাস্তা পার হয় না। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গাড়ির সামনে দিয়ে হেঁটে পার হচেছন তারা।একের পর এক গাড়ি চলছে, মানুষ রাস্তা পার হচেছ। সুযোগ বুঝে কেউ হেঁটে পার হচেছ, কারো আবার সে সময়টুকুও অপেক্ষা করার সময় নেই। ঝুঁকিপূর্নভাবে দৌড়ে রাস্তা পার হন অনেকেই। এতে বিভিন্ন সময়ে ওভারব্রিজ এলাকায় ঘটছে দূর্ঘটনা। প্রাণহানি হয়েছেও বহুবার। তবুও মানুষ রাস্তা পারাপারে সচেতন হচেছ না।
    সব মিলিয়ে সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা গেল- গুটি কয়েকজন ছাড়া রাস্তা পারাপারে বেশিরভাগ লোকই ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার করছেন না। এ সড়কে এ রকম চিত্র দেখা যায় প্রতিনিয়ত। নিরাপদে রাস্তা পারাপারে কোটি কোটি টাকা ব্যয় করে তৈরি করা হয়েছে ওভার ব্রিজ। কিš‘ বাস্তবে সে ওভার ব্রিজ ব্যবহার করছে না বেশিরভাগ পথচারী। ফলে সড়কে নির্মিত ওভারব্রিজটির সুফল পাওয়া যাচেছ না।
    পথচারীরা জানান, ফুট ওভারব্রিজ পরিকল্পিতভাবে নির্মিত হয়নি। ওভারব্রিজের সিঁড়ির ধাপগুলো আনুপাতিকভাবে সঠিক নয়। ফলে বয়স্ক ও মানুষ চাইলেও তা ব্যবহার করতে পারে না।এজন্য ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার হতে হচেছ। আবার পার হতে গিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ছেন অনেকেই। এই ওভারব্রিজ এলাকায় রাস্তা পার হতে গিয়ে দূর্ঘটনায় অনেকের মৃত্যু হয়েছে। তবু কে শুনে কার কথা, ঝুকি নিয়ে পার হয় রাস্তা ব্যবহার করে না ফুট ওভারব্রিজ।
    পাশে ফুটওভার ব্রিজ রেখে মানিকগঞ্জ ট্রাফিক পুলিশ বক্সের পাশ দিয়ে হেঁটে পার হচেছলেন আব্দুল হারুন খান মুন্নু নামের এক ব্যক্তি। কেন ওভারব্রিজ ব্যবহার করছেন না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার বয়স ৭০ বছর। আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা , ওভারব্রিজ যে উঁচু সেখানে উঠে রাস্তা পার হওয়া আমার পক্ষে সম্ভব নয়। আমি একবার উঠে অস্থির হয়ে গিয়েছিলাম। তিনি বলেন, প্রায় লোকই রাস্তা পার হতে ওভারব্রিজ ব্যবহার করে না।যাদের বয়স ৬০ বছরের উপরে তাদের পক্ষে ওভার ব্রিজ দিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। তিনি বলেন ফুটওভারব্রিজের সিড়ি গুলো অধিক উচু হয়েছে এজন্য উঠতে খুবই কষ্ট হয়।
    পথচারী আজাহারুল ইসলাম বলেন, ওভারব্রিজ দিয়ে পার হতে ৫ মিনিট লাগবে, আর রাস্তা দিয়ে পার হতে ১ মিনিটও লাগে না। এজন্য তারাতাড়ি যাওয়ার জন্য অনেকেই ওভারব্রিজ ব্যবহার করে না। দূর্ঘটনা এড়াতে সবাইকে ফুটওভারব্রিজ দিয়ে রাস্তা পার হওয়া উচিত বলে জানায় তিনি।
    এ বিষয়ে মানিকগঞ্জ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর(প্রশাসন) আবুল হোসেন গাজী বলেন, পথচারীরা যেন ফুট ওভারব্রিজ দিয়ে রাস্তা পারাপার হয় সেজন্য তাদের সচেতন করা হয়েছে। তবুও তারা ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার না করে ঝুঁকিপূর্নভাবে রাস্তা পার হয়।তিনি বলেন এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জরিমানা করে ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    বাংলাদেশ সময়: ৬:৩০ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ