• শিরোনাম

    মনোহরদীতে ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ১০০ অভিযোগ

    মনোহরদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি | রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২১ | পড়া হয়েছে 37 বার

    apps

    নরসিংদীর মনোহরদীতে ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ঘুষ ছাড়া ফাইল নড়ে না। এ ছাড়া সেবাপ্রত্যাশীদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণসহ গালমন্দ করার অভিযোগও রয়েছে। লেবুতলা ইউনিয়ন উপসহকারী ভূমি কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদের বিরুদ্ধে উঠেছে এমন অভিযোগ। ওই কর্মকর্তার শান্তি দাবি করে নরসিংদীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন লেবুতলা ইউনিয়নের প্রায় ১০০ ভুক্তভোগী। লিখিত অভিযোগ এবং এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, নামজারির জমাভাগের নামে কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ কৌশলে সেবা নিতে আসা লোকজনদের কাছে থেকে বহু টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। লেবুতলা গ্রামের দুজন ভুক্তভোগী জানান, টাকা না দিলে এই অফিসের পিয়নও ফাইল হাতে নেন না। টাকা দিলে কাগজ ঠিক থাকে, টাকা না দিলে কাগজে ভুলভ্রান্তি ধরা হয়। লেবুতলা ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন আকন্দ এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের কাছে সুপারিশ করেছেন। আবুল কালাম আজাদ দীর্ঘদিন ধরে মনোহরদী উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নে দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে কাচিকাটা ইউনিয়ন ভূমি অফিসে দায়িত্ব পালন করার সময় তাঁর অবৈধ কার্যকলাপের জন্য এলাকার লোকজন তাঁর বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল করারও অভিযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে লেবুতলা ইউনিয়ন উপসহকারী ভূমি কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বাচ্চু বলেন, ‘তাঁদের অবৈধ আবদার আমি মেটাই না এ জন্য তাঁদের মনে অনেক কষ্ট। তাই আমার বিরুদ্ধে এত অভিযোগ। অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট হয় এ জন্য আমাদের ওপর ক্ষুব্ধ। ২২ বছর ধরে চাকরি করছি শেষ বয়সে এসে তাঁদের কাছ থেকে আচরণ নিয়ে প্রশ্ন ওঠাটা খুবই বিব্রতকর ও দুঃখজনক।’

    বাংলাদেশ সময়: ২:১৫ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ