• শিরোনাম

    মনোহরদীতে আঞ্চলিক সড়কের বেহাল দশা, দুর্ভোগে ৩ ইউনিয়নবাসী

    অনলাইন ডেস্ক | রবিবার, ০১ আগস্ট ২০২১ | পড়া হয়েছে 63 বার

    মনোহরদীতে আঞ্চলিক সড়কের বেহাল দশা, দুর্ভোগে ৩ ইউনিয়নবাসী
    apps

    শান্ত বণিক, বিশেষ প্রতিনিধি:

    নরসিংদীর মনোহরদীতে নির্মাণের পর দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে নোয়াকান্দি-চালাকচর-শেখের বাজার আঞ্চলিক সড়ক। ১০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট এই সড়কটির ৯ কিলোমিটার অংশজুড়ে খানাখন্দের সৃষ্টি হওয়ায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন উপজেলার তিন ইউনিয়নের বাসিন্দারা। দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাগবে সড়কটি সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

    সড়ক ও জনপথ বিভাগ ও সরেজমিন গিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ২০০৪ সালে সড়ক ও জনপথ বিভাগ কর্তৃক নির্মাণ করা হয় মনোহরদী উপজেলার নোয়াকান্দি-চালাকচর-শেখের বাজার আঞ্চলিক সড়কটি। ১০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য ও ১২ ফিট প্রস্থের এই সড়কে যাতায়াত করেন উপজেলার তিন ইউনিয়ন লেবুতলা, চালাকচর ও কাচিকাটা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের বাসিন্দারা। উপজেলার ঐতিহ্যবাহি চালাকচর বাজার, উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত ও কৃষিপণ্য পরিবহনে এলাকাবাসির জন্য এই সড়কটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া এই সড়কে পাশের জেলা গাজীপুরের খিরাটি, কাপাসিয়া ও রানীগঞ্জ এলাকা থেকেও খুচরা ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ আসেন চালাকচর বাজারে।

    সড়কটি নির্মাণের কয়েক বছর পর থেকেই খানাখন্দ ও গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। সড়কের বেশিরভাগ অংশের পিচ ওঠে গিয়ে সৃষ্ট বড় বড় গর্তের কারণে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ইজিবাইকসহ ছোট ছোট যানবাহন। এতে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। সড়ক চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় চালাকচর বাজারে যাতায়াত ও কৃষিপণ্য পরিবহনে বেড়েছে ভোগান্তি। দীর্ঘদিন ধরে বেহাল দশায় পরিণত হলেও দুই বছর আগে সড়কটির এক কিলোমিটার সংস্কার করে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। বাকী অংশের সংস্কার না করায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে সড়কটি। ফলে বাধ্য হয়ে ১০ কিলোমিটার ঘুরে বিকল্প সড়কে চলাচল করতে গিয়ে ব্যয় হচ্ছে বাড়তি সময় ও খরচ। দীর্ঘদিন ধরে চলমান এই দুর্ভোগ লাঘব ও তিন ইউনিয়নের হাজার হাজার লোকজনের যাতায়াতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি জরুরি ভিত্তিতে সংস্কারের দাবি এলাকাবাসীর।

    সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক জাহিদ হাসান বলেন, দীর্ঘদিন ধরে সড়কের বেহাল দশার কারণে গাড়ি চালাতে সমস্যা হচ্ছে। যাত্রী কম পাওয়া যায়, জ্বালানী গ্যাস খরচ বেশি হওয়াসহ ও প্রায়ই গাড়ি নষ্ট হয়ে যায়। নির্মাণের পর থেকে সংস্কার না করায় ব্যস্ততম এই সড়কটি এখন প্রায় পরিত্যক্ত হতে চলছে।

    অপর সিএনজি চালক নজরুল ইসলাম বলেন, চালাকচর বাজার থেকে ৭ কিলোমিটার পর্যন্ত সড়কটির খুবই খারাপ অবস্থা। কিছু কিছু স্থানে বড় গর্তের কারণে গাড়ি থেকে যাত্রীদের নামিয়ে দিতে হয়।

    চক তাতারদি গ্রামের বাসিন্দা ফারজানা বেগম বলেন, এই রাস্তায় চলাচল খুবই কষ্টকর। কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে উপজেলা সদর হাসপাতালে রোগী নিয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। গাড়িতে গেলে অসুস্থ হয়ে পড়তে হয় তাই পায়ে হেটে চলাচল করি।

    লেবুতলা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ আলী বলেন, কয়েক বছর ধরে শুনতেছি পুরো সড়কের সংস্কার কাজ হবে কিন্তু দুই বছর আগে মাত্র এক কিলোমিটার সড়ক সংস্কার হয়েছে। এলাকাবাসী প্রতিনিয়ত অভিযোগ করেন সড়ক নিয়ে কিন্তু আমাদের কিছু করার নাই।

    যোগাযোগ করা হলে নরসিংদী সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোফাজ্জল হায়দার জানান, গুরুত্ব বিবেচনা করে পর্যায়ক্রমে সড়ক বিভাগ কর্তৃক নির্মিত চলাচলের অনুপযোগী সব সড়কের সংস্কার কাজ করা হচ্ছে। নির্মাণের পর দুই বছর আগে মনোহরদীর এই সড়কটির ১ কিলোমিটার সংস্কার কাজ করা হয়েছে। চলতি অর্থ বছরে সড়কটির দেড় কিলোমিটার অংশ সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এছাড়া আগামী অর্থ বছরে সড়কটি ১২ ফিট থেকে ১৮ ফিটে প্রশস্থকরণসহ পুরো সড়কটির সংস্কার কাজ করা হবে।

     

    বাংলাদেশ সময়: ১২:০২ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ০১ আগস্ট ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আজ বিজয়া দশমী

    ২৬ অক্টোবর ২০২০

    পরম শ্রদ্ধেয় বাবার স্মরণে

    ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

    আর্কাইভ