• শিরোনাম

    ভাসামান ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ী জনগোষ্ঠীর সুখ-দুঃখের কথা

    নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি খন্দকার আমির হোসেন= | শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | পড়া হয়েছে 26 বার

    ভাসামান ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ী জনগোষ্ঠীর সুখ-দুঃখের কথা
    apps

    নরসিংদীর শিবপুরের কুন্দারপাড়া বাসস্ট্যান্ডের পাশে অস্থায়ী ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ীরা বসবাস করছে। ওদের অস্থায়ী গৃহ নির্মান দেখলে সবাই বলবে ওরা বেঁধে সম্প্রদায়ের মানুষ। প্রকৃত পক্ষে তারা গ্রামে হেটে হেটে কড়ি বিক্রি,বাতেরমালা,তাবিজ বিক্রি,সিঙ্গালাগানো,হারিয়ে যাওয়া জিনিস খুঁজে বের করা ইত্যাদি কাজকর্মের মাঝে তাদের জীবন জীবিকা নির্বাহ করেন। যেখানে গিয়ে অস্থায়ী গৃহ নির্মান করেন সেখানে তারা ১৫/২০ দিন অবস্থান করেন। আবার ব্যবসার অবনতি ঘটলে তারা অন্যত্র চলে যায়। প্রতিদিন ৩/৪ শত টাকা রোজগার করে চলে তাদের সংসার। এখানকার বহরে ১৩ টি পরিবার বসবাস করছে। ৪/৫ দিন যাবৎ তারা এখানে বসবাস করছে এবিষয়ে ওয়াসিম নামক সরদারের সাথে কথা হলে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার খড়িয়া গ্রামে তাদের স্থানীয় বাড়ি। শিশু কিশোরদের পড়াশোনার কথা বললে সরদার বলেন ২৫/৩০ জন শিশু কিশোর রয়েছে বই পেলে সুবিধা হবে। এবিষয়ে সূধি জনেরা বলেন এসবে কোন রোগ বালাই দুর হয়না এটা একটা ধান্ধাবাজি করে তারা চলে। গুনিজনেরা বলেন এদেশ উন্নত করতে হলে, হরিজন,রবিদাস,বেঁধে সম্প্রদায়,ক্ষুদ্র ভাসমান ব্যাবসায়ী,ভিক্ষুকদের ভিক্ষাবৃত্তি এসব নিয়ে কাজ করতে হবে। তাদের পূর্ন বাসন, কর্মের ব্যবস্থা, বসবাসের নিদৃষ্টস্থান তাহলে আমরা উন্নত বিশ্বের দিকে এগিয়ে যেতে পারবো।

    বাংলাদেশ সময়: ২:২৬ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ