• শিরোনাম

    বিএনপি নেতাকে নৌকার মনোনয়ন, প্রধানমন্ত্রী বরাবর অভিযোগ

     টি এম এ হাসান , সিরাজগঞ্জ: | মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর ২০২১ | পড়া হয়েছে 97 বার

    বিএনপি নেতাকে নৌকার মনোনয়ন, প্রধানমন্ত্রী বরাবর অভিযোগ
    apps

    আসন্ন দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার ৮ং পাঙ্গাসী ইউনিয়নে বিএনপি নেতাকে বাংলাদেশ আ.লীগের মনোনয়ন দিয়ে নৌকা প্রতীক দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় বিএনপি নেতাকে মনোনয়ন দেয়া প্রসঙ্গে আ.লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর একটি লিখিত আবেদনও দিয়েছেন ইউনিয়ন আ.লীগ। সেখানে ১নং ওয়ার্ড আ.লীগের একটি প্রত্যয়ন পত্রও সংযুক্ত করে দেয়া হয়েছে সেই অভিযোগে।। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পাঙ্গাসী ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি মো. মোজাম্মেক হক। এছাড়াও সেই মনোনয়ন পাওয়া রফিকুল ইসলাম নান্নু ১নং ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটির কাগজ জাল করেছেন বলেও জানান তিনি। অভিযোগ সূত্রে দেখা গেছে, ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড দেউলমুড়া গ্রামের মৃত আ. জব্বার খানের ছেলে রফিকুল ইসলাম খান নান্নু আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগের দলীয় মনোনয়ন পান। কিন্তু তিনি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আ.লীগের সদস্য না বরং ১নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে দায়িত্বে আছেন। এর পরেও তাকে মনোনয়ন দেওয়ায় সে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে আ.লীগের নয় বরং বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করবে মর্মেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি মোজাম্মেল হক, সহ-সভাপতি আ. মজিদ ও সাধারণ সম্পাদক মো. সুলতান মাহমুদ স্বাক্ষরিত চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, ৩০-৪০ বছরের পরীক্ষিত নেতা-কর্মীদের বাদ দিয়ে তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ায় আ.লীগের নেতাকর্মীরা চরমভাবে হতাশ ও ক্ষুব্ধ। এঘটনায় সবাই নিন্দা প্রকাশ করছেন জানিয়ে তাকে মনোনয়ন দেওয়ায় আ.লীগের সম্মান চরমভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এবং এমন প্রার্থী নির্বাচিত হলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাংলাদেশ আ.লীগের আদর্শ বাস্তবায়ন করা মোটেও সম্ভব নয়। এছাড়াও এসকলকিছু উল্লেখ করে তার দলীয় মনোনয়ন বাতিল করে আওয়ামিলীগের ত্যাগী কোনও ব্যাক্তিতে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।।এ পাঙ্গাসী ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক সুলতাম মাহমুদ বলেন, যাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে তিনি বাংলাদেশ আ.লীগের প্রাথমিক সদস্যও না। তিনি ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটির কাগজে ১৭নং সদস্যের নামে ওপরে টেম্পারিং (জাল) করে নিজের নাম বসিয়েছেন। তাই দলের সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর এর মনোনয়ন বাতিল ও নতুন দলের কাওকে মনোনয়ন দিতে আবেদন করা হয়েছে। এবিষয়ে পাঙ্গাসী ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি মো. মোজাম্মেক হক বলেন, তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ায় আ.লীগের সকল নেতা-কর্মীরা ক্ষুব্ধ। এখন বিএনপির লোকজন আমাদের বলছেন, তোমরা আমাদের দলের লোককে নৌকার মনোনয়ন দিলা। এছাড়াও তিনি ১নং ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটির কাগজ জাল করে সেখানে নিজেকে ১৭নাম্বার সদস্য হিসাবে পরিচয় দিয়েছেন। কিন্তু সেই ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি জানিয়েছেন তিনি সেখানকার কোনও সদস্য না। এর প্রেক্ষিতে আমরা গতকাল রোববার (১০ অক্টোবর) দলের দপ্তর সম্পাদক এর মাধ্যমে দলের সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর এর মনোনয়ন বাতিল ও নতুন দলের কাওকে মনোনয়ন দিতে আবেদন করা হয়েছে। তবে এসবকিছু অস্বীকার করে আ.লীগের মনোনয়ন পাওয়া চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুল ইসলাম নান্নু বলেন, এসকল অভিযোগ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমুলক। আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্যই এগুলো করা হচ্ছে। এছাড়া ২০১৯সালে হাতে লেখা কমিটিতে আমি ওয়ার্ড আ.লীগের সদস্য হিসাবেই আছি। উল্লেখ্য, নির্বাচনের আগেই চেয়ারম্যান পরিচয় দিয়ে কিছুদিন আগে তোরণ নির্মান করায় এর আগেও সমালোচনার সৃষ্টি করেছিলেন। ### টি এম এ হাসান সিরাজগঞ্জ

    বাংলাদেশ সময়: ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ