• শিরোনাম

    বানের পানিতে ভেসে গেল জামালপুরের চলাচলের পথ,, গাবের গ্রামবাসীর স্বপ্নপূরণের পথে ব্যাঘাত

     শারমিন আক্তার উপজেলা প্রতিনিধি জামালপুর | মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২ | পড়া হয়েছে 69 বার

    বানের পানিতে ভেসে গেল জামালপুরের চলাচলের পথ,, গাবের গ্রামবাসীর স্বপ্নপূরণের পথে ব্যাঘাত
    apps

    জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ উপজেলার ৪ নং বালিজুড়ী ইউনিয়নের অন্তর্গত গাবের গ্রাম নামক স্থানে খকরা বিল ও যমুনার পাড় ধরে স্থাপিত হতে যাচ্ছিলো ৬ ফিট গোড়া,৩০ ফিট চান্দি সম্পন্ন ৩৫০ ফিট লম্বা রাস্তা। রাস্তার কাজ প্রায় সম্পন্ন হওয়ার পথে, যার বাজেট ছিলো ৬ কোটি টাকা। উক্ত ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মির্জা ফখরুল, ইউপি নির্বাচনের অনেক আগে থেকেই একজন সমাজ সেবক ও সাধারণ জনগণের প্রতিনিধি হওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেই বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন সময়ে রাস্তাটি তৈরি করার উদ্দেশ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান ও জমির মালিকদের কাছে বারবার দ্বারস্থ হয়েছেন। একাধিকবার রাস্তাটির বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের নিকট জানিয়েছেন এবং নির্বাচনের পরে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব প্রাপ্ত হয়ে রাস্তার জন্য জমি দানকৃত মালিকদের নিজের মতো করেই মিল মীমাংসার মধ্য দিয়ে এই রাস্তার কাজটি শুরু করেন। উক্ত রাস্তাটির কাজ প্রায় শেষের দিকে, এমতাবস্থায় প্রাকৃতিক নিয়ম অনুযায়ী উক্ত ইউনিয়ন বন্যায় কবলিত হয়। বন্যা পরিস্থিতি অবনতির কারণে প্রায় ২০০ ফিট রাস্তা ভেঙে যায়। প্রাকৃতিক পরিস্থিতির কারণে রাস্তাটি ভেঙে যাওয়ায় চেয়ারম্যানের প্রতিপক্ষ কিছু ব্যক্তি বর্গ চেয়ারম্যানের উন্নয়নমূলক কাজে ঈর্ষান্বিত হয়ে তার বিপক্ষে সরকারি টাকা আত্মসাৎ ও কাজের অনিয়ম হয়েছে বলে দাবি করেন। কিন্তু সরেজমিনে উক্ত রাস্তাটি তে পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে ও স্থানীয় জনগণের বক্তব্য অনুযায়ী বন্যা পরিস্থিতির অবনতির কারণে রাস্তাটি ভেঙে যায় বলে জানা যায়। সেইসাথে সুবিধাভোগী জনগণ স্পষ্ট করেন যে বর্তমান চেয়ারম্যান মির্জা ফখরুল অত্যন্ত মানবতা সম্পন্ন ও মাটির মানুষ। তিনি সরকারি কোন কাজে অনিয়ম বা দুর্নীতি করেননি বলে দাবি করেন স্থানীয় জনগণ। চেয়ারম্যানের সম্পর্কে যে বা যারাই কূটনীতি করে থাকুন না কেন বা চেয়ারম্যান কে যে বা যারাই দুর্নীতিবাজ প্রমাণ করার চেষ্টা করে থাকুন না কেন তাদের প্রতি তীব্র ঘৃণা প্রকাশ করেন স্থানীয় জনগণ। সবার উপস্থিতিতে দীর্ঘদিন যাবৎ চোখধাঁধানো মন জুড়ানো বিশাল মনমুগ্ধকর এই রাস্তাটি প্রায় সম্পন্ন হতেই যাচ্ছিলো, ইতোমধ্যেই এলাকাটি বন্যায় প্লাবিত হওয়ার কারণে রাস্তাটি ভেঙে যায় এবং শত শত লোকজনদের যাতায়াতের ব্যাঘাত ঘটে। উক্ত রাস্তাটি নিয়ে দুই পাশের বসবাসরত সর্ব সাধারণের মধ্যে একটি নতুন স্বপ্ন বিরাজমান ছিলো। রাস্তাটি ভাঙ্গার কারণে সর্বসাধারণের মন বিষাদময় হয়ে গিয়েছে। চেয়ারম্যান মহোদয় সবাইকে আশ্বস্ত করেছেন বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি হওয়ার সাথে সাথে এই রাস্তার কাজটি আবার শুরু করবেন।সেই সাথে তিনি এও জানান, শুধু এই রাস্তাটি নয়, আমি দায়িত্বরত থাকা অবস্থায় সরকারি দপ্তর থেকে যে সকল সুবিধাদী পাবো সেগুলো ছাড়াও আমি আমার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে আমার এলাকার গরিব দুঃখীর পাশে থাকবো ইনশাল্লাহ।

    বাংলাদেশ সময়: ১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ