• শিরোনাম

    স্টাফ রিপোর্টার

    “বশেমুরকৃবিতে দ্বিতীয় মেয়াদে ভিসি হয়েছেন নরসিংদী সদরের কৃতি সন্তান প্রফেসর ড. মোঃ গিয়াসউদ্দীন মিয়া

    অনলাইন ডেস্ক | মঙ্গলবার, ২৫ মে ২০২১ | পড়া হয়েছে 442 বার

    “বশেমুরকৃবিতে দ্বিতীয় মেয়াদে ভিসি হয়েছেন নরসিংদী সদরের কৃতি সন্তান প্রফেসর ড. মোঃ গিয়াসউদ্দীন মিয়া
    apps

    প্রফেসর ড. মোঃ গিয়াসউদ্দীন মিয়া নরসিংদী জেলার সদর উপজেলাধীন মাধবদী থানার সাগরদী গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে ১৯৬০ সালে জন্মগ্রহণ করেন।তাঁর পিতার নাম হাজী মোঃ ছায়েদ আলী ও মাতার নাম আমেনা বেগম।সাগরদী প্রাইমারী স্কুলে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপ্তির পর মাধবদী সতী প্রসন্ন উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১৯৭৫ সালে মাধ্যমিক এবং নরসিংদী সরকারি কলেজ থেকে ১৯৭৭ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন।তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হতে ১৯৮২ সালে বিএসসি( কৃষি সম্মান) এবং ১৯৮৪ সালে কৃষিতত্ত্বে মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ফিলিপাইনের সেন্ট্রাল লোজন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় ও আন্তর্জাতিক ধান গবেষণা হতে ১৯৯৩ সালে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। প্রফেসর গিয়াসউদ্দীন জাপানের কিউশু বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইবারাকি এর ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব অ্যাগ্রো এনভায়রনম্যান্টাল স্টাডিজ এ পোস্ট ডক্টরাল গবেষণা করেন।

    পরবর্তী সময়ে তিনি কমনওয়েলথ স্কলার হিসেবে কানাডার লাভাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং যুক্তরাজ্যের নটিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পোস্ট ডক্টরাল গবেষণা করেন।তিনি উক্ত বিষয়ে তিনটি বই ও ১০৮ টির অধিক গবেষণা প্রবন্ধের রচয়িতা।তাঁর তত্ত্বাবধানে ১৫ জন ছাত্র পিএইচডি ও ১০৩ জন ছাত্র এমএস ডিগ্রি লাভ করেন। ড. গিয়াসউদ্দীন বহু আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের অর্থায়নে(USAID,USDA,FAO,UNESCO,APN,ICRAF,EU) অনেক গবেষণা / প্রকল্প সাফল্যের সাথে সম্পন্ন করেন।তিনি ভারত,নেপাল,শ্রীলংকা,চীন,ভুটান,অস্ট্রেলিয়া,জাপান, আমেরিকা ও যুক্তরাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথভাবে গবেষণা পরিচালনা করে আসছেন। বর্তমানে তিনি দুটি আন্তর্জাতিক সংস্থার বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন। তিনি ৭৩ বার বিদেশে গবেষণাপ্রবন্ধ উপস্থাপন সহ বিভিন্ন সভায় যোগদান করেন। প্রফেসর গিয়াসউদ্দীন মিয়া পরপর তিনবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদকের দ্বায়িত্ব পালন করেন।তিনি ২০০৯ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারারের দ্বায়িত্ব পালন করেন।তিনি দীর্ঘদিন অত্র বিশ্ববিদ্যালয় এবং সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য ছিলেন।মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর মোঃ আবদুল হামিদ ১১ জুন ২০১৭ সালে তাঁকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস- চ্যান্সেলরের দ্বায়িত্ব প্রদান করেন।

    দ্বায়িত্ব গ্রহনের পর তিনি বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষা ও গবেষণার মান আন্তর্জাতিক মানে উন্নিত করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টার ফলে ২০২১ সালে বিশ্বখ্যাত স্কোপাস ও সিমাগো ইনডেক্স জরিপে বশেমুরকৃবি বাংলাদেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে গবেষণা,উদ্ভাবন ও সামাজিক অবস্থান এই তিন সূচকে প্রথম স্থান লাভ করে। এছাড়াও একই ইনডেক্স জরিপে বশেমুরকৃবি গত ২০১৯ ও ২০২০ সালে বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ৪র্থ ও ২য় স্থান লাভ করেছিলো।উপাচার্যের সততা,দক্ষ ও সুযোগ্য নেতৃত্বের উপর আস্থা রেখেই মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর মোঃ আবদুল হামিদ তাঁকে মেয়াদ পূর্তির ১৫ দিন পূর্বেই ২৫ মে ২০২১ তারিখে দ্বিতীয় মেয়াদে ভাইস- চ্যান্সেলর হিসেবে দ্বায়িত্ব প্রদান করে।প্রথম মেয়াদ পূর্তির পরের কার্যদিবস থেকে তার দ্বিতীয় মেয়াদ শুরু হবে। তাঁর নিয়োগে নরসিংদীর জনগণ অত্যান্ত আনন্দিত ও গর্ব অনুভব করছে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে।

    বাংলাদেশ সময়: ১০:৪০ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২৫ মে ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ