• শিরোনাম

    বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের উদ্যোগে শোকাবহ জেল হত্যা দিবস পালিত

    নিজস্ব প্রতিবেদক | বুধবার, ০৩ নভেম্বর ২০২১ | পড়া হয়েছে 55 বার

    বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের উদ্যোগে শোকাবহ জেল হত্যা দিবস পালিত
    apps

    জেল হত্যা দিবস ২০২১ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের উদ্যোগে ৫১,৫১/এ পুরানা পল্টন, ঢাকাস্থ সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ৩ নভেম্বর বুধবার, সকাল ১১টায় ‘জেল হত্যা-বঙ্গবন্ধু হত্যাকাÐ ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা একই সূত্রে গাঁথা’ শীর্ষক আলোচনাসভা ও শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)’র সভাপতি ওমর ফারুক। উদ্বোধক হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ সিকিউরিটি স্টক একচেঞ্জ এর সাবেক চেয়ারম্যান বিচারপতি ছিদ্দিকুর রহমান মিয়া।

    প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক রাষ্ট্রদূত অধ্যাপক ড. নিম চন্দ্র ভৌমিক। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, দৈনিক নবচেতনা পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক লায়ন মোঃ সাখাওয়াত হোসেন, বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক ডিআইজি বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ আনোয়ার হোসেন, বিশ্ব বাঙালি সম্মেলনের সভাপতি কবি আব্দুল খালেক, দৈনিক বঙ্গজননী সম্পাদক ও প্রকাশক বীর মুক্তিযোদ্ধা কামরুজ্জামান জিয়া, জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিল, কাজী আরেফ ফাউন্ডেশনের সভাপতি কাজী মাসুদ আহমেদ ও কবি শাফীকুর রাহী। অনুষ্ঠানে জেল হত্যা দিবসে শহীদদের নিবেদিত স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন কবি তৌহিদুল ইসলাম কনক, কবি আব্দুল কুদ্দুছ, কবি নাজনীন স্বপ্না, কবি হৃদয় মমিন প্রমুখ।

    আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের প্রকাশনা ও পাঠাগার সম্পাদক মোঃ কামাল হোসেন খান, নির্বাহী সদস্য মোঃ মাসুদ আলম, দৈনিক আজকের বাণী পত্রিকার সম্পাদক মোঃ আতিকুল ইসলাম, গীতিকার ও শিল্পী রবিউল হোসাইন প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওমর ফারুক বলেন, জেল হত্যা-বঙ্গবন্ধু হত্যাকাÐ ও ২১ আগস্টে গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের বিচারের জন্যে স্বাধীন কমিশন গঠন করা প্রয়োজন। মহান মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু অনুপস্থিতিতে যারা সফল নেতৃত্বের মাধ্যমে স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছিল, তাদেরকেই ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর জেলখানায় নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। যা বাঙালি জাতির ইতিহাসে কলংকময় ও বর্বরোচিত অধ্যায়। সভাপতির বক্তব্যে লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নৃশংসভাবে হত্যার পর ৩ নভেম্বর বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর জাতীয় চার নেতাকে কেন্দ্রীয় কারাগারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

    যা বাঙালি জাতির ইতিহাসে বর্বরোচিত, জঘন্য ও কলঙ্কময় অধ্যায়। এই হত্যাকান্ডে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে অবিলম্বে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। তিনি সকলকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে কাজ করার আহŸান জানান। আলোচনা শেষে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের ও ৩ নভেম্বরের শহীদদের আত্মার মাগফেরাত ও দেশ-জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহিফল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন, অনুষ্ঠানের সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল।

    বাংলাদেশ সময়: ৮:৪৮ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০৩ নভেম্বর ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ