• শিরোনাম

    বঙ্গবন্ধুর অমর আসন বাংলার মানুষের হৃদয়ের গভীরে

    অনলাইন ডেস্ক | শুক্রবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 150 বার

    বঙ্গবন্ধুর অমর আসন বাংলার মানুষের হৃদয়ের গভীরে
    apps

       নূরুদ্দীন দরজী:

    চরম ধৃষ্টতা দেখিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যের অবমাননা করা হয়েছে।  বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়মনে আঘাত করে ক্ষত সৃষ্টি করা হয়েছে। আজ কয়েক দিন যাবত  ভাস্কর্যের বিরোধীতাকারীদের বিরুদ্ধে সারা দেশে জন অসন্তোষ দৃশ্যমান। দেশের সর্বত্র নিন্দা, প্রতিবাদ, বিক্ষোভ, মিছিল, মানববন্ধন অব্যাহত গতিতে চলছে। সবার একটাই দাবি ভাস্কর্যের অপমানের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

    আমরা জানি,অতীতে ও তারা বাংলাদেশের বিপক্ষে ষড়যন্ত করেছে, বঙ্গবন্ধুকে ইতিহাসের পাতা থেকে চিরতরে মুছে ফেলতে চেয়েছিল। স্বাধীনতার বিরোধীতা করে পার না পেয়ে ১৯৭৫ এর কালোরাতে পরিবারবর্গ সহ বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে তাদের অভিলাষ চরিতার্থকরতে চেয়েছে।  খুনি মোশতাক নিজে ও তার সাঙ্গপাঙ্গদের বাঁচানোর জন্য কুখ্যাত ইনডেমনিটি অর্ডিন্যান্স‌ ও জারি করেছিল।

    কিন্তু তারা  শতভাগ ব্যার্থ হয়ে ইতিহাসের আঁস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়ে বাকি জীবনে চিরন্তন অনলের প্রচন্ড দাহে  জ্বলেপুড়ে দগ্ধ হয়েছে।। যতবার‌ই ষড়যন্তকারীরা তাদের থাবা তুলেছে, দেশের  সর্বনাশ করতে চেয়েছে  আপামর জনতার প্রতিরোধে তারা নিচ্ছিন্ন হয়েছে।বাংলার মানুষ হাতে হাত ও কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে তাদের ষড়যন্ত ব্যর্থ করেছে।

    দীর্ঘ সংগ্রাম করে এক সাগর রক্তের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। বঙ্গবন্ধুর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ও জুলুম নির্যাতন হয়ে তিনি আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধু হাজারো বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি। ইতিহাস বলে বাংলার মানুষ কত  ভালবাসতেন তাঁকে,মনপ্রাণ উজার করে ভালবাসেন এখনো বঙ্গবন্ধুকে। এমন একটি সময় ছিল বাংলার সাধারণ মানুষ তাঁর নাম শোনা মাত্রই যে কোন ত্যাগের জন্য প্রস্তুত থেকেছে। বাংলাদেশে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কঠিন ছিল যে তাঁকে ভালবাসতো না। সে সময়ে অনেক মুসলমান বঙ্গবন্ধুর জন্য রোজা রাখতেন। মসজিদ, মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডায় সবাই তাঁর জন্য দোয়া ও প্রার্থনা করতো। বঙ্গবন্ধুর নামে জীবন উৎসর্গ করতে ও অনেক মানুষ দ্বিধা করতো না।

    আজ বঙ্গবন্ধুর এ স্বাধীন দেশে তাকে নিয়ে ষড়যন্ত্র  তাঁর ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার উদত্য  মানুষ কি কোনভাবে সহ্য করতে পারে ? অবশ্যই তা সম্ভব নয়। সকল কুমানসিকতা ,ধৃষ্ট আচরণ ,কুমতলব ও ষড়যন্ত্র   জনগণ নস্যাৎ করে দিবে। কারণ- বঙ্গবন্ধুর জন্য বাঙালি হৃদয়ের অসীম গভীরে যে জায়গা সেখান থেকে কেউ তাকে মুছতে পারবেনা। সে জায়গায় ষড়যন্ত পৌঁছতে পারবেনা। বঙ্গবন্ধু আছেন, তিনি থাকবেন বাংলাদেশের মানুষের মনের গহীনে। বঙ্গবন্ধুর অমর স্থান  কেউ কোন দিন এক ইঞ্চি পরিমাণ ও টলাতে পারবে না।

    লেখক: কলামিস্ট সাবেক উপজেলা শিক্ষা অফিসার (টিইও)

    বাংলাদেশ সময়: ৯:৫০ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২০

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    রূপা

    ২৪ অক্টোবর ২০২০

    নায়িকা হয়েও কবি ছিলেন

    ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

    কৃষি ব্যাংক নিয়ে গান

    ৩০ নভেম্বর ২০২০

    অসভ্যতার বিজয় কেতন

    ০৯ অক্টোবর ২০২০

    ছোটগল্প (দেনা)

    ২৫ জুলাই ২০২১

    আর্কাইভ