• শিরোনাম

    ফরিদপুরে আওয়ালীগ অফিস ভাঙ্গচুর লেবার সর্দারের উপর হামলা ও চাদাবাজির অভিযোগ

     মোঃমাহফুজুর রহমান বিপ্লব,ফরিদপুর প্রতিনিধি | সোমবার, ০৬ জুন ২০২২ | পড়া হয়েছে 39 বার

    ফরিদপুরে আওয়ালীগ অফিস ভাঙ্গচুর লেবার সর্দারের উপর হামলা ও চাদাবাজির অভিযোগ
    apps

    ফরিদপুরে চাঁদা না দেয়ায় আওয়ালীগ অফিস ভাঙ্গচুর ও ব্যাবসায়ীর উপর অতর্কিত হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলার শিকার ব্যক্তি ফরিদপুর সদর শিবরামপুর আমিরাবাদ রেলস্টেশনের মালামাল লোড আনলোডের জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত লেবার সর্দার মো আলাউদ্দিন মোল্লা। তিনি বঙ্গবন্ধু স্মতি সংসদ ও স্মতি পাঠাগারের কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক। তিনি জানান,গতকাল রবিবার দুপুর সদর উপজলার শিবরামপুর আওয়ামীলীগ অফিস মিটিং চলাকালে ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী তার উপর এ হামলা চালায় । এ সময় অফিস টাঙ্গানা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবিসহ আসবাবপত্র ভাংচুর করা হয়। এ বিষয় আলাউদ্দিন মোল্লা বাদী হয়ে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় ৮ জন সহ অজ্ঞাত ২০/২৫ জনের নামে একটি এজাহার দায়ের করেছেন। এজাহার সুত্র জানা যায়, আলাউদ্দিন মোল্লা দলীয় কর্মকান্ডের অংশ হিসেবে শিবরামপুর আওয়ামীলীগ অফিস মিটিং চলাকালীন অবস্থায় জহুরুল ইসলাম জনি, লুৎফর ফকির (৪৫), রাজীব (৩০), সোহেল শেখ (৩০), মমিন শিকদার (৪০), হাসিবুল ইসলাম রকি (৩০), আছির উদ্দিন (৪০), বাদশা মল্লিক সহ অজ্ঞাত আরা ২০/২৫ জন ধারালা রামদা, চাপাতি, চাইনিজ কুড়াল, পিস্তলসহ ঢুক ২০,০০,০০০/- (বিশ লক্ষ) টাকা চাঁদা দাবী করে। তিনি চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করলে হামলা চালায় এবং মারধরসহ আওয়ামী লীগ অফিস ভাংচুর শুরু করে। এ সময় জনি ও লুৎফর ফকির পিস্তল উচিয়ে আলাউদ্দিন মোল্লাকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দিয় চুপ থাকত বলে। তারা আওয়ামী লীগর অফিস থাকা বঙ্গবন্ধুর ছবি ও মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর ছবিসহ অফিসের সমস্ত আসবাবপত্র ভাংচুর করে। জানা যায়, মো আলাউদ্দিন মোল্লাকে সরকারি বিধি মোতাবেক শিবরামপুর রেল ষ্টেশনের লেবার সর্দার হিসাবে রেল কর্তৃপক্ষ তাকে নিয়োগ দেয়।নিয়োগের পর হইতে আলাউদ্দিন মোল্লা রেলের নিয়ম অনুসারে অসহায় হতদরিদ্র লোক নিয়ে কাজ করে আসছে,তবে এজারে উল্লেখিত ব্যাক্তিরা এর আগে ও তার উপর একাদিক বার হামলা চালায়, বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করে চলছে, এবং তার কাজেকর্মে নানান ভাবে বাঁধার সৃষ্টি করে চলছে, এই বিষয়ে কোতায়ালী থানা পুলিশ সহ বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ অবগত রয়েছেন। এলাকাবাসীর সূত্রে জানায়,গতকাল তিনি আওয়ালীগের দলীয় কর্মকান্ডের বিষয়ে মিটিং চলাকালীন হঠাৎ ২০/২৫ জন লোক অফিসে ডুকে কিছু বোঝে ওটার আগেই গালিগালাজ, হুমকী ধামকির মাধ্যমর,২০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে, তিনি কিসের টাকা দিবে বলে জানতে চাই, তাঁরা বলে টাকা দিবি না হয় ব্যাবসা করতে পারবি না, তিনি টাকা দিতে অস্বীকার করলে এ হামলার ঘটনার ঘটে। এমনকি ঐ খানে পুলিশ প্রশাসনর সদস্য উপস্থিত থাকা সদস্যদের উপর ও তারা হামলা করে। এ ঘটনায় তাৎক্ষনিক কোতয়ালী থানার ওসি, ডিবির ওসি, পিবিআই এর ওসি, জিআরপির ওসি, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ বিষয় কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ এর সাথ কথা বললে তিনি বলেন, এ বিষয়ে একটি এজাহার পয়ছি। তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

    বাংলাদেশ সময়: ১২:৪০ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৬ জুন ২০২২

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ