• শিরোনাম

    প্রচার-প্রচারণায় জমে উঠছে মনোহরদী পৌর নির্বাচন, নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন সুজন

    অনলাইন ডেস্ক | শনিবার, ০৯ জানুয়ারি ২০২১ | পড়া হয়েছে 383 বার

    প্রচার-প্রচারণায় জমে উঠছে মনোহরদী পৌর নির্বাচন, নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন সুজন
    apps

    শান্ত বণিক, বিশেষ প্রতিনিধি: প্রার্থীদের গণসংযোগ আর প্রচার-প্রচারণায় জমে উঠছে আসন্ন মনোহরদী পৌরসভা নির্বাচন। আগামী ১৬ জানুয়ারি পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রার্থীদের গণসংযোগ আর দিনরাত প্রচার-প্রচারণায় জমে উঠছে পৌরসভা নির্বাচন। পৌরসভার রাস্তাঘাট, অলিগলি ও পাড়া-মহল্লা এখন শ্লোগানমুখর। ব্যানার-ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে পুরো শহর। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে বসতবাড়িতেও এখন আলোচনার বিষয় শুধু নির্বাচন। প্রার্থীরা ভোট চেয়ে চষে বেড়াচ্ছেন তাদের নির্বাচনী এলাকা। নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী (নৌকা প্রতীক) আমিনুর রশিদ সুজন ব্যাপক গণসংযোগ করে বেড়াচ্ছেন।
    এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার রাতে মনোহরদী হিন্দুপাড়া ৭নং ওয়ার্ডে অনুষ্ঠিত হয়েছে উঠান বৈঠক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন ভূঁইয়া, নরসিংদী জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিএম তালেব, নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নজরুল মজিদ মাহমুদ স্বপন, মনোহরদী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এড. ফজলুল হক, মনোহরদী উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক সাদেকুর রহমান, মনোহরদী উপজেলা আওয়ামী লীগেরসাধারণ সম্পাদক প্রিয়াশীষ রায়, মনোহরদী পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি কফিল উদ্দিন, মনোহরদী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল সামাদ মোল্লা যাদু, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মাসুদ রানাসহ মনোহরদী উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, সেচ্ছাসেবকলীগ, জাতীয় শ্রমিকলীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ এবং মনোহরদী বাজারের বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও ৭নং ওয়ার্ডবাসী। সভায় সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কৃষ্ণধন সাহা।
    জনসাধারণের সাথে মতবিনিমকালে মেয়র প্রার্থী আমিনুর রশিদ সুজন বলেন, পাঁচ বছর আগে আপনারা আমাকে ভালোবেসে স্নেহ করে আমাকে মেয়র পদে নির্বাচিত করেছেন। এই পাঁচ বছরে মনোহরদী বাজারের কোনো ব্যবসায়ি বলতে পারবে না আমার দ্বারা তারা কোনো হয়রানির শিকার হয়েছে বা কোনো চাঁদাবাজীর শিকার হয়েছে। গত পাঁচ বছরে পাঁচটি টাকাও আমি কোনো ব্যবসায়ীর কাছ থেকে কোনো প্রোগ্রামের জন্য নিয়েছি এটা কেউ বলতে পারবে না। তিনি আরো বলেন, আমি আমার সন্তানের পিতা হওয়ার আগে পৌরপিতা হয়েছি। তাই আপনাদের প্রতি আমার মমতা, ভালোবাসা ও টান অনেক গভীর। এছাড়া আমি বিশ্বাস করি আপনারা আমাকে নিজেদের সন্তানের মতোই ভালোবাসেন। আপনাদের পরিবারের একজন মনে করেন। আপনাদের ভালোবাসায় আমি সিক্ত। পরিশেষে আমি একটা কথাই বলতে চাই, আপনাদের দোয়া-আশীর্বাদ আমার উপর আছে বলেই গত ৫ বছর আপনাদের হয়ে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি এবং আগামী ৫ বছর ও আপনাদের হয়ে কাজ করতে চাই। আগামী ১৬ই জানুয়ারি নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আমায় আবারও নির্বাচিত করবেন এই আশা রাখছি।
    এ সময় ৭নং ওয়ার্ডের ৬জন কাউন্সিলর পদপ্রার্থী ও ২ জন মহিলা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী সভায় তাদের নিজ নিজ প্রতীকে ভোটে চেয়েছে জনসাধারণের কাছে।

    বাংলাদেশ সময়: ১:৩৬ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০৯ জানুয়ারি ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ