• শিরোনাম

    পাবনা’র আলোকিত ক্যাম্পাস টিএসসি’র সফল অধ্যক্ষ জমিদার রহমান নিজ জেলা রংপুরে বদলী

    জামিল হোসেন পাবনা প্রতিনিধি : | সোমবার, ০৩ জানুয়ারি ২০২২ | পড়া হয়েছে 15 বার

    পাবনা’র আলোকিত ক্যাম্পাস টিএসসি’র সফল অধ্যক্ষ জমিদার রহমান নিজ জেলা রংপুরে বদলী

    পাবনা’র আলোকিত ক্যাম্পাস টিএসসি’র সফল অধ্যক্ষ জমিদার রহমান নিজ জেলা রংপুরে বদলী

    apps

    সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ পাবনা’র অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার মো. জমিদার রহমানকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাঁর নিজ জেলা রংপুরে বদলী করেন। রবিবার (০২’ জানুয়ারী) সকালে কলেজের কনফারেন্স রুমে তাকে বদলীজনিত ফুলের শুভেচ্ছা জানান প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মকর্তা কর্মচারীরা। এ সময় আবেগ আপ্লুত হয়ে ইঞ্জিনিয়ার মো. জমিদার রহমান তার কর্মজীবনের অভিব্যক্তি তুরে ধরে বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিকে পরম মমতা ও যতেœ আধুনিক সুযোগ সুবিধায় আলোকিত করতে চেষ্টা করেছি। শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য বিভিন্ন সময়ে স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান ও সংস্থা থেকে বিভিন্ন এ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছি। তিনি আরও বলেন, সবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি এ্যাড. শামছুল হক টুকু এমপি, পাবনা সদর আসনের সংসদ সদস্য, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স, পাবনা-সিরাজগঞ্জ সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমীন জলি, পাবনার সাবেক জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দিন, কবীর মাহমুদ, পাবনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ রেজাউল রহিম লাল, পাবনার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম, পৌর মেয়র শরীফ উদ্দিন প্রধান, পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদ প্রমুখ টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের ক্যাম্পাস পরিদর্শন করে মুগ্ধ হন। ইঞ্জিনিয়ার মো. জমিদার রহমান রংপুর জেলায় এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। তাঁর বর্ণাঢ্য পারিবারিক জীবনেও তিনি সফল ও সার্থক। বড় ছেলে ইঞ্জিনিয়ার মো. নাজমুস সাকিব ৩৮তম বিসিএস ক্যাডারে উত্তীর্ণ হয়ে ফরিদপুর জেলায় গণপূর্ত অধিদপ্তরে সহকারি প্রকৌশলী হিসাবে চাকরি করেন। ছোট ছেলে ইঞ্জিনিয়ার মো. সাইয়েদুস সিফাত বর্তমানে আমেরিকায় ভার্জিনিয়া টেক ইউনিভার্সিটিতে কম্পিউটার সায়েন্স এ পিএইচডি তে অধ্যায়নরত এবং সবচেয়ে কনিষ্ঠ মেয়ে জাহিন সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণীতে অধ্যয়ণরত। যেভাবে তিনি তাঁর সন্তাদের মায়া মমতায় সুশিক্ষায় মানুষের মত মানুষ করেছেন। তেমনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোকেও তিনি পরম মমতা ও যতেœ আধুনিক সুযোগ সুবিধায় আলোকিত করেছেন। তাঁর বর্ণাঢ্য জীবনে ২০০১ খ্রি. তিনি বাংলাদেশ ইনষ্টিটিউট অব টেকনোলজী (বি আই টি) রাজশাহীতে (বর্তমান রুয়েট) কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে সহকারি অধ্যাপক (উন্নয়ন) পদে চাকুরিতে নিয়োগ পেয়েছিলেন। এরপর ১৯৯৪ খ্রি. তিনি ডুয়েট থেকে বিএসসি ইঞ্জিয়ারিং এ সম্মানসহ স্ট্যান্ড করেন। তারপর ২০০৪ খ্রি. পঞ্চগড় জেলার টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজে অধ্যক্ষ হিসাবে চাকুরিতে নিয়োগ পেয়েছিলেন। ২০০৫ খ্রি. তিনি কুড়িগ্রাম টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে যোগদান করে প্রতিষ্ঠানকে কারিগরি পর্যায়ে সেরা বিদ্যাপীঠ হিসাবে গড়ে তোলেন। সর্বশেষ তিনি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ পাবনার অধ্যক্ষ হিসেবে চাকুরিতে যোগদান করেন। চাকুরি জীবনের শেষ দিকে তাঁর নিজ জেলা রংপুরে বদলীজনিত কারণে আসতে পেরে মহান সৃষ্টিকর্তার নিকট শুকরিয়া আদায় করে সকলের সুদৃষ্টি ও ভালবাসা প্রত্যাশা করেছেন।

    বাংলাদেশ সময়: ১:২১ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৩ জানুয়ারি ২০২২

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ