• শিরোনাম

    পাঠ্যবইয়ে নবীজীর পবিত্র জীবনী মুবারক অন্তর্ভুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

    স্টাফ রিপোর্টার | রবিবার, ১৪ নভেম্বর ২০২১ | পড়া হয়েছে 8 বার

    পাঠ্যবইয়ে নবীজীর পবিত্র জীবনী মুবারক অন্তর্ভুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

    পাঠ্যবইয়ে নবীজীর পবিত্র জীবনী মুবারক অন্তর্ভুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

    apps
    দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রত্যেক শ্রেণীর পাঠ্যবইয়ে নবীজীর পবিত্র জীবনী মুবারক আবশ্যিকভাবে অন্তর্ভূক্তির দাবিতে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ ক‌রে সংবাদ সম্মেলন করেন রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী রাজার বাগ দরবার শরীফ। শনিবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা মোহাম্মদ আকরাম খাঁ হলে রাজারবাগ দরবার শরীফের উদ্যোগে আখেরী রসূল হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম “তিনি শুধু মহান আল্লাহ পাক নন, এছাড়া সব কিছু” শীর্ষক এক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। বক্তারা বলেন, আমাদের প্রিয় নবী নূরে মুজাসসাম হুযূর পাক (সাঃ) তিনি শুধু মহান আল্লাহ পাক নন, এ ছাড়া সব কিছুই।  তিনিই মহান আল্লাহ তায়ালার সর্বপ্রথম সৃষ্টি মুবারক।  এছাড়া সমস্ত শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারকের একমাত্র তিনিই মালিক।  কাজেই উনার মুবারক শানে সর্বোচ্চ বিশুদ্ধ ধারণা পোষণ করা প্রত্যেক মুসলমানের জন্য ফরজে আইন।  রাজারবাগ দরবার শরীফে নবীজীর সু-মহান শান-মান ও মর্যাদা মুবারক সারাবিশ্বে ব্যাপকভাবে প্রচার-প্রসারে রাজারবাগ শরীফের মহাসম্মানিত শায়েখ আলাইহিস সালাম উনার অবদান ও কার্যক্রম তুলে ধরেন বক্তারা। আলোচনায় বক্তারা বলেন, আফসুস ও দুঃখের বিষয় হলো- রহমতুল্লিল আলামীন হুযূর পাক (সাঃ) উনার পবিত্র জীবনী মুবারক নিয়ে বিশ্বে একক কোন গবেষণাগার নেই।  উনার পবিত্র জীবনী মুবারক নিয়ে গবেষণা করার জন্য কোটি কোটি স্বতন্ত্র গবেষণা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা প্রয়োজন এবং  রাজারবাগ দরবার শরীফে হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বৎসরভিত্তিক জীবনী মুবারক নিয়ে বিশেষ কিতাব প্রকাশিত হয়েছে।  সবার উচিত সেই কিতাব সংগ্রহ করে পাঠ করা।
    নবীজীর শানে মানহানীকারীদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড আইন বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, পবিত্র কুরআন ও হাদিস শরীফ অনুসারে আখেরী রসূল হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মানহানীকারীর একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।  তাই, যে বা যারাই প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে, অনলাইনে বা অফলাইনে উনার মানহানীর অপচেষ্টা করছে, তাদের ব্যাপারে ‘শরয়ী শাস্তি মৃত্যুদণ্ড’ আইন বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে রাজারবাগ দরবার শরীফের প্রতিনিধিরা বলেন, যা বিশ্বের প্রত্যেক মুসলিম দেশের সরকারের জন্য দায়িত্ব। অনুষ্ঠানে মুহম্মদ মশিউজ্জামান বেলালের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন, দৈনিক আল ইহসান ও মাসিক আল বাইয়্যিনাত পত্রিকার বিশিষ্ট কলামিষ্ট ও মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদরাসার মুহতামিম মুফতী মুহম্মদ আলমগীর হুসাইন, মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ গবেষণা কেন্দ্রের অন্যতম গবেষক মুহাদ্দিছ মুহম্মদ আল আমীন প্রমুখ। পবিত্র কুরআন শরীফের সূরা আল ইনশিরাহ’র বরাত দিয়ে বক্তারা বলেন, মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন ‘আমার মহাসম্মানিত রসূল (সাঃ) আপনার পবিত্র আলোচনা মুবারক আমি বুলন্দ হতে বুলন্দতর করেছি। ’ আর পবিত্র হাদিসে কুদসী শরীফে মহান আল্লাহ পাক ইরশাদ মুবারক করেন, ‘হে হাবীব (সাঃ)! আমি আপনাকে সৃষ্টি মুবারক না করলে, আমার মহাসম্মানিত কুদরত মুবারক প্রকাশ করতাম না। ’ আহলে সুন্নত ওয়াল জামায়াতের আক্বীদাহ হলো, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক (সাঃ) উনার মহাসম্মানিত স্পর্শ মুবারক-এ যা কিছু এসেছেন তা সম্মানিত আরশে আযীম থেকেও লক্ষ কোটি গুণ বেশি ফযীলতপ্রাপ্ত।
    বক্তারা বলেন, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খ্বতামুন্ নাবিয়্যীন, রহমতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফে উসওয়াতুন হাসানাহ বা সর্বোত্তম আদর্শ মুবারক হিসেবে ঘোষণা মুবারক করেছেন।  আর উনার পবিত্র আদর্শ মুবারক হচ্ছেন পবিত্র সুন্নত মুবারক।  তাই, পরিপূর্ণভাবে পবিত্র সুন্নত মুবারক অনুসরন-অনুকরন করা প্রত্যেক মুসলমানের জন্য ফরয।  আর পবিত্র সুন্নত মুবারক সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে রাজারবাগ দরবার শরীফে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে ‘আন্তর্জাতিক পবিত্র সুন্নত মুবারক প্রচার কেন্দ্র’।
    বক্তারা আরো বলেন, নবীজীর বিলাদত শরীফ (জন্ম) দিবস মুবারক উনার সম্মানার্থে রাজারবাগ দরবার শরীফে অনন্তকালব্যাপী মাহফিল জারী হয়েছে। সেখানে সাইয়্যিদুল মুরসালীন ইমামুল মুরসালীন খ্বতামুন্ নাবিয়্যীন রহমতুল্লিল আলামীন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র সাওয়ানেহ উমরী বা পবিত্র জীবনী মুবারক হতে প্রতিদিন বাদ মাগরিব হতে আলোচনা-পর্যালোচনা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মুসলিম উম্মাহ সকলের উচিত উক্ত বেমেছাল বরকতময় মাহফিলে অংশগ্রহণ করা। বক্তারা আরো বলেন, রাজারবাগ দরবার শরীফে সাইয়্যিদুল মুরসালীন ইমামুল মুরসালীন খ্বতামুন নাবিয়্যীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম উনার সম্মানার্থে অনন্তকালব্যাপী জারিকৃত পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ মাহফিলের বিশেষ অংশ হিসেবে প্রতিদিন বাদ যোহর শরঈ খাছ পর্দার সাথে মহিলাদের জন্য আলাদা তা’লিমী মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। তাই প্রত্যেক মুসলিম মহিলার উচিত উক্ত মাহফিলে শরীক হয়ে দোজাহানের কামিয়াবী হাসিল করা।

    বাংলাদেশ সময়: ৭:১৬ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৪ নভেম্বর ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ