• শিরোনাম

    নড়িয়ায় যুবককে গুলি ও কুপিয়ে হত্যা, এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

    শরীয়তপুর প্রতিনিধি | রবিবার, ২৯ আগস্ট ২০২১ | পড়া হয়েছে 64 বার

    নড়িয়ায় যুবককে গুলি ও কুপিয়ে হত্যা, এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
    apps

    ঃ আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে নড়িয়া উপজেলায় আলমগীর মীর বহর (৩৫) নামে এক জনকে গুলি ও কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে পুলিশ। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনাটি আজ রোববার সকালে শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার রাজনগর ইউনিয়ন ভুমি অফিসের সামনে ঘটেছে। নিহত আলমগীর মীর বহর মালতকারি গ্রামের দলিল উদ্দিন মীর মালতের ছেলে।
    নিহতের বড় ভাই জাহাঙ্গীর মীর বহর ও নড়িয়া থানা সুত্রে জানা গেছে, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রাজনগর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান, নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক জাকির হোসেন গাজী ও সাবেক চেয়ারম্যান আলীউজ্জামান মীর মালত গ্রæপের সংগে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। গতকাল শনিবার রাতে মালত কান্দি এলাকার দলিল উদ্দিন মীর বহর এর ছেলে আলমগীর মীর বহর স্থানীয় আন্দার মানিক বাজারে চা খাওয়ার জন্য যায়। এরপর সে নিখোঁজ হয়। রাতে তাকে বিভিন্ন স্থানে খুজা খুজি করে পাওয়া যায়নি। আজ সকালে আন্দার মানিক বাজারের পশ্চিম পাশের্^ রাজনগর ভুমি অফিসের সামনে রাস্তায় তার লাশ পাওয়া যায়। তার শরীরে একাধিক গুলি ও কুপনোর চিহ্ন রয়েছে। লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা নড়িয়া থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
    নিহতের মা রেনু বেগম বলেন, আমার নিরপরাধ ছেলেকে সন্ত্রাসীরা ধরে নিয়ে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে। আমি এ হত্যা কান্ডের বিচার চাই।
    রাজনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ফারুক হোসেন দাদন বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান জাকির হোসেন গাজি ও সাবেক চেয়ারম্যান আলীউজ্জামান মীর মালত এর বিরুধের কারনে এ হত্যা কান্ড ঘটেছে।
    রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জাকির হোসেন গাজী বলেন, আলীউজ্জামান মীর মালত তার লোকজন নিয়ে গত কয়েক দিন যাবৎ আমার লোকজনের উপর হামলার পরিকল্পনা করছে। তার পরিকল্পনা অনুযায়ী আমার লোককে ধরে নিয়ে হত্যা করেছে।
    রাজ নগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলীউজ্জামান মীর মালত বলেন, তারা তাদের নিজেদের লোককে হত্যা করে আমাদের উপর দায়ভার চাপাতে চায়। পাশা পাশি আমি এলাকায় যাইনা। তার পর ও আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছে।
    নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) তদন্ত রুবেল হাওলাদার বলেন, আমরা রাজনগর এলাকার আন্দার মানিক বাজার থেকে এক যুবকের গুলিবৃদ্ধ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে প্রেরন করেছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

     

    বাংলাদেশ সময়: ২:৫৫ অপরাহ্ণ | রবিবার, ২৯ আগস্ট ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ