• শিরোনাম

    নিকলী উপজেলার আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক

    অনলাইন ডেস্ক | শনিবার, ১৭ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 196 বার

    নিকলী উপজেলার আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক
    apps

    নিজস্ব প্রতিবেদক:

    “আশ্রয়ণের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার”মুজিববর্ষে “বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না ” মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ নির্দেশনা বাস্তবায়নে সারাদেশে ১ম ও ২য় পর্যায়ে সর্বমোট ১ লাখ ১৮ হাজার ৩৮০ টি দ্বি- কক্ষ বিশিষ্ট সেমি পাকা একক গৃহ নির্মাণ করা হয়েছে।

    কিশোরগঞ্জ জেলায় দুই পর্যায় মিলিয়ে সর্বমোট ১২৪৭টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে (কিছু গৃহের নির্মাণ কাজ চলমান)। ১৭ জুলাই শনিবার তারিখে কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী উপজেলার কারপাশা ইউনিয়নে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন কিশোরগঞ্জ জেলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম।

    এ সময় জেলা প্রশাসক উক্ত স্থানে থাকা প্রকল্পের প্রতিটি ঘর সরেজমিনে পরিদর্শন করেন এবং ঘরে অবস্থানরত উপকারভোগীদের সাথে সরাসরি কথা বলেন। জেলা প্রশাসক উপকারভোগীদের কর্মসংস্থান,খাদ্য, চিকিৎসা, স্যানিটেশন, বিদ্যুত ও খাবার পানিসহ অন্যান্য সকল বিষয়ে সার্বিক খোঁজখবর নেন এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের সকল উপকারভোগীদের সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখাসহ যে কোন সমস্যার তাৎক্ষণিক সমাধানের জন্য নির্দেশনা দেন।

    এ সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে অবস্থানরত উপকারভোগীরা তাদের পূর্বের আশ্রয়হীন ও গৃহহীন অসহায় জীবন-যাপনের বর্ণনা দিয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েন এবং তাদের গৃহ প্রদানের মাধ্যমে পরিবারসহ একটি সুন্দর জীবন উপহার প্রদানের জন্য জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অশেষ শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। পরিদর্শনকালে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নুরুজ্জামান, উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

    উল্লেখ্য যে, নিকলী উপজেলায় মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১ম ও ২য় পর্যায়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় সর্বমোট ৫৪টি ঘর নির্মিত হয়েছে।

    বাংলাদেশ সময়: ১০:২৯ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১৭ জুলাই ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ