• শিরোনাম

    ডিএসসিসি ৬৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু এনামুল ইসলাম এনাম

    শরীফ আহমেদ প্রতিবেদনঃ | মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ | পড়া হয়েছে 27 বার

    ডিএসসিসি ৬৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী আলোচনার  কেন্দ্র বিন্দু এনামুল ইসলাম এনাম
    apps

    ঢাকা দক্ষিণ সিটি ৬৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আলোচনা কেন্দ্রবিন্দু জনপ্রিয়তায় শীর্ষে অবস্থান করছেন সাবেক বৃহত্তর ডেমরা থানা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এনামুল ইসলাম এনাম। সম্প্রতি ঢাকা দক্ষিণ মহানগর আওয়ামী লীগের নীতি নির্ধারকদের উপস্থিতি হয়ে গেল যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন- ২০২২। ত্রিবার্ষিক সম্মেলন ঘিরে যাত্রাবাড়ী থানার বিএসএস এর প্রত্যেকটি ওয়ার্ডের তৃণমূল নেতা কর্মীরা ব্যাপক উৎস সহ উদ্দীপনা উৎসবমুখর পরিবেশে সম্মেলনকে সফল করেন। আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন প্রত্যেকটি ওয়ার্ড কে ঢেলে সাজানো হবে। সেই লক্ষ্যে নির্বাচনী আসন ভিত্তিক কমিটি গঠনের লক্ষ্যে প্রার্থীদের বায়োডাটা সংগ্রহ করা হয়েছে। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ৬৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক পদে এনামুল ইসলাম এনাম কে ঘিরে ব্যাপক আলোচনা চলছে। বৃহত্তর ডেমরা থানা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি এনামুল ইসলাম এনাম এলাকায় জননন্দিত একজন আওয়ামী লীগ নেতা। বিগত সময়ে বিএনপি জামাত স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে রাজপথে আন্দোলনের তৎকালীন সময়ে একজন সাহসী নেতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। সেই সময়ে বিএনপি জামাতের পেঁটুয়া বাহিনী, পুলিশি নির্যাতন ও জেল জুলুমের শিকার হন তিনি। একজন ত্যাগী আওয়ামী লীগ নেতা হিসেবে এলাকায় তার সুনাম রয়েছে। রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন সামাজিক ধর্মীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেন এলাকায়। আসন্ন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের নবগঠিত ৬৫ নং ওয়ার্ড কমিটিতে তাকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত করতে এলাকাবাসী সোচ্চার হয়েছে। ইতোমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুক সহ সর্বোচ্চ তাকে নিয়ে প্রচারে নেমেছে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। তৎপরতা ওয়ান ইলেভেনের সময় কারাবন্দী আওয়ামী লীগ সভাপতি বর্তমান দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মুক্তির আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে রাজপথে থেকে আন্দোলন করেছেন। দেশরত্ব শেখ হাসিনার মুক্তির আন্দোলনে অংশগ্রহণ করে বাড়ি ফেরার পথে ধোলাইপাড় এলাকায় গণগ্রেপ্তারে তাকেও আটক করে পুলিশ। পরবর্তী সময়ে সায়দাবাদ করাতিতোলা স্কুলে অস্থায়ী হাজত থানায় দীর্ঘ তিন মাস নির্যাতন ও কারা ভোগ করে। পরে তিনি জামিনে মুক্তি পান। ২০০৬ সালেও তিনি আওয়ামী লীগের পক্ষে আন্দোলন করতে গিয়ে কারাবন্দী হয়েছেন।তিনি জেল থেকে বের হয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের দলীয় কর্মসূচি দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তির আন্দোলনে রাজধানী বাংলা মটর এলাকায় স্বাধীনতা বিরোধী বিএনপি জামায়াতে জোট সরকারের পতন আন্দোলনের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রিক কমিটির বর্তমানে প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতা আসাদুজ্জামান নূর ভাই নেতৃত্বে আন্দোলন রত অবস্থায় আবার গ্রেফতার হন।জনাব এনামুল ইসলাম তিনি ৬৫ নং ওয়ার্ড এলাকায় বহু আত্ম সামাজিক ও এলাকার উন্নয়নে জন্য নিবেদিত ছিলেন। নিজের ব্যাক্তিগত অর্থ দিয়ে সাবেক মাতুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদে অধীনে থাকাকালীন তিনি বৃষ্টি পানিতে এলাকায় জলাবদ্ধতা দূরীকরণের ব্যাপক সহযোগিতা করেন।করোনাকালীন অএ এলাকায় অসহায় গরীব মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।বিভিন্ম সময় অসহায় পরিবারে মাঝে নগত অর্থ দিয়ে সহযোগিতা করছেন।তিনি বঙ্গবন্ধুর আর্দশ বুকে লালন করে দলের জন্য নিজের জীবনকে উৎসর্গের করেছেন।তিনি ঢাকা-০৫ আসনের উপনির্বাচনে দলীয় নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সর্বাত্মক ভুমিকা পালন করেন।তিনি ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন মেয়র নির্বাচনে ৬৫ নং ওয়ার্ড রোকেয়া আহসান কলেজ কেন্দ্রে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান আহবায়ক দায়িত্ব পালন করেন।তিনি বিএনপি জামায়াতে জ্বালাও পোঁড়ায় আন্দোলনের প্রতিহত করতে নিজ উদ্যেগে স্হানীয় তখন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজপথে থেকে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেন।ঢাকা-০৫ আসনের বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ ৪/৪ বারে সাবেক সফল সাংসদ আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান মোল্লা সাহেবের সর্বদা পাশে থেকে একনিষ্ঠ নেতার দায়িত্ব পালন করেন।তাই ৬৫ নং সকল তৃনমূল আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী একটাই দাবী সাবেক তুখোড় ছাএনেতা জনাব এনামুল ইসলাম এনামকে সাধারণ সম্পাদক পদে দেখতে চায়।

    বাংলাদেশ সময়: ১০:৩৬ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ