• শিরোনাম

    জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও খাদ্য বিতরণ।

    নারগিস পারভীনঃ | বৃহস্পতিবার, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | পড়া হয়েছে 38 বার

    জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও খাদ্য বিতরণ।
    apps
     
    জাতীয় শোক দিবস, শোকাবহ ১৫ ই আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে সমগ্র জাতির সঙ্গে একাত্ম হয়ে যথাযোগ্য শ্রদ্ধা,ভালোবাসা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশের মধ্যে দিয়ে শেরে-ই বাংলা নগর থানা সেচ্চাসেবক লীগের আয়োজনে আলোচনা সভা ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি পালিত হয়। শেরে-ই বাংলা নগর থানা সেচ্চাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ এর সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান সাগর এর (শেরে-ই বাংলা নগর থানা সেচ্চাসেবক লীগ) সঞ্চালনায় সরকার ঘোষিত কোভিট-১৯ এর সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনে ২৮ আগস্ট ২০২১ইং সালে শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক প্রাঙ্গণে করোনায় ক্ষতি গ্রস্ত অসহায় ৫০০ পরিবারের মাঝে চাল ডাল শুকনা খাবার এবং এডিস মশা, ডেঙ্গুও চিকুনগুনিয়া রোধে একটি করে মশারি বিতরণ করতে দেখা গেছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল নির্মল রঞ্জন গুহ, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাধারন সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু (বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ), বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সিনিয়র সহ-সভাপতি গাজী মেজ বাউল হোসেন সাচ্চু(বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ), ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইসহাক মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান নাঈম সহ থানা, ওয়ার্ড, ইউনিট আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের অন্যান্য স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। ১৯৭৫ সালে ১৫ই আগস্ট ভয়াল সেই কালো রাত্রে রচিত হয়েছে বাঙালীর জীবনে এক কলঙ্কিত অধ্যায়, বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবার এবং নিকটাত্মীয়সহ ২৬ জনকে ওই রাতে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা সে সময় তৎকালীন পশ্চিম জার্মানিতে অবস্থান করায় তারা প্রাণে বেঁচে যান বাঙালির মহান নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চিরঞ্জীব, তার চেতনা অবিনশ্বর। মুজিব আদর্শে শানিত বাংলার আকাশ-বাতাস, জল-সমতল। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মের কাছে শেখ মুজিবুর রহমানের অবিনাশী চেতনা ও আদর্শ চির প্রবহমান থাকবে। এদিন স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, বাঙালির মহানায়ককে হত্যা করেছিল ক্ষমতালোভী নরপিশাচ কুচক্রী মহল। জাতির পিতা চেয়েছিলেন ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের জনগণের মুক্তির যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যকে জয় করে বিশ্বসভায় একটি উন্নয়নশীল, মর্যাদাবান জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশ। করোনার দূর্যোগ মূহুর্তেও জননেত্রী শেখ হাসিনা বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশের মানুষের রক্ষা করার লক্ষ্য কাজ করে যাচ্ছেন এবং করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণের জন্য বিনামূল্যে দানের কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছেন। আমাদের মুজিব আর্দশে দেশ জাতি গঠনের জন্য এগিয়ে আসতে হবে, স্বাস্থ্য বিধি মানতে হবে আমাদের এই করোনার যুদ্ধ জয় করবো ইনশাআল্লাহ, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় বক্তব্য কালে এসব কথা বলে বক্তব্য রাখেন অতিথিবৃন্দ।

    বাংলাদেশ সময়: ৮:৪৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ