• শিরোনাম

    জবরদখলকৃত জমির কলা বাগান কেটে জমির মালিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

    মোঃ কামরুল ইসলাম, মনোহরদী প্রতিনিধি | মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 138 বার

    জবরদখলকৃত জমির কলা বাগান কেটে জমির মালিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ
    apps

    নরসিংদীর মনোহরদীতে জবরদখল করা জমির কলা বাগান নিজেরাই কেটে জমির মালিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে জবরদখলকারীরা। গত বুধবার (৭ জুলাই) উপজেলার হেতেমদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। জমির মালিক হেতেমদী গ্রামের মৃত. হেলাল উদ্দীনের ছেলে ছমির উদ্দীন (৬৫)। অসহায় ছমির উদ্দীন জানান, চন্দনবাড়ী মৌজার সিএস খতিয়ান নং-১০০, এসএ খতিয়ান নং- ১৪৬, আরএস খতিয়ান নং-২১৫, মোট জমি ৫১ শতাংশ ইহার কাতে ১৮ শতাংশ জমি জবরদখল হওয়ায় আদালতে মামলা চলমান। যাহা গত দেড় বছর আগে হেতেমদী গ্রামের আঃ রাজ্জাক (৪৫), জজ মিয়া (৪২), তারা মিয়া (৪০), পিতা- মৃত. হেলাল উদ্দিন, রতন মিয়া (৩৮), পিতা- মৃত আঃ হাই, কাউসার, ফারুক ও অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন সহ দলবল নিয়ে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে জোর পূর্বক জমি দখল করে তাতে ঘর স্থাপন ও বাকী জমিতে কলা চাষ করে। পরে বিষয়টি স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তিদেরকে জানালে কোন প্রকার সুরাহা করতে পারেনি। বাধ্য হয়ে জমির দখল পাওয়ার জন্য ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে নরসিংদী দায়রা জজ আদালতের শরণাপন্ন হয়ে দেওয়ানী মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং- ১/২০১৯, যাহা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। গত ৭ই জুলাই গভীর রাতে দখলকারীরা নিজেরাই জবরদখলকৃত জমিতে তাদের লাগানো কলা বাগান নিজেরাই কেটে জমির মালিক ছমির উদ্দিন গংদের সমাজের চোখে হেয় প্রতিপন্ন ও মামলায় জয়ী হওয়ার কৌশল হিসেবে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে ঘটনাটি ঘটিয়ে তাদের ফাঁসাতে চাইছে। দরিদ্র ছমির উদ্দীন আরও বলেন, ভূমিদস্যুরা এভাবেই আমাকে নিরিহ ও দুর্বল পেয়ে বিভিন্ন হুমকি-ধমকি দিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। আমি জমির প্রকৃত মালিক হয়েও এখন অসহায় জীবন-যাপন করছি।

     

    বাংলাদেশ সময়: ১:২৮ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ