• শিরোনাম

    গাইবান্ধায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেতে প্রার্থীদের ঘোড়া দৌড়

    একেএম নূরুল আমিন গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ | শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | পড়া হয়েছে 18 বার

    apps

    আগামী ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীক নৌকা পেতে  প্রার্থীরা ঘোড়া দৌড় শুরু করেছে। গত ১৮ সেপ্টেম্বর শনিবার বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া তর্থ্যে জানা যায়,সরকার দলীয় নৌকা প্রতীক পেতে নানা ধরণের লবিং চলছে এবং সরকারের শরীক দল কথিত বিরোধী দল জাতীয় পার্টির একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশিগণ লাঙ্গল প্রতীক পাওয়ার আশায় ঘোড়া দৌড় ছুটছেন মানমীয় সংসদ সদস্য ব্যারিষ্টার শামীম হায়দার পাটোরীর কাছে। নৌকা প্রতীক পেতে প্রত্যেকটি ইউনিয়নে ডজেন খানেক নেতার লবিং এবং দৌড়ের উপরে দৌড়ে  ছুটছে চলছে প্রতীক পাওয়ার আশায়।তাদের চিন্তা চেতনা ভোটার তাদেরকে চিনুক বা নায় চিনুক ঐ দু’ প্রতীকের যে কোন একটি নিতে পারলে জয়ের মালা নিশ্চিত গলায় বসবে সন্দেহ নেই,এমনটায় একমাত্র ভরসা করেই ছুটছে হাই কমান্ডদের কাছে। এলাকা ঘুরে দেখাগেছে জাতীয় পার্টির মাননীয় সাংসদ বিগত দিনে এলাকায় তেমন কাজ করতে পারেনি এবং দলে উড়ান্ত বলাকার স্থান দেয়ায় প্রকৃত ত্যাগীনেতারা বিমুখ হয়েছে।উড়ে এসে জুড়ে বসেছে এমন নেতারাই এখন এমপি সাহেবের ডান হাত বলে অনেক ত্যাগি নেতাদের অভিযোগ। সরকারী দলের হাই কমান্ড প্রকৃত আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাকে সিলেকটেড না করে মৌসুমি নেতাকে দলে স্থান দেয়ায় গত ইউপি নির্বাচনে অধিকাংশ প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়েও জামায়াতী ইসলামে কাছে হেরেছেন।এবারও সরকার দলীয় নৌকা প্রতীক সঠিক লোকের হাতে না দেয়া হয় আবারও হয়তো পূর্বের দৃশ্যই দেখতে হবে এমনটায় ধারণা এলাকাসীর।আর অনেকের ধারণা দল করে কিন্ত কোন প্রতিষ্ঠান নিন্ম পদে চাকরি  করে, সে ক্ষেত্র তার গ্রহন যোগ্যতা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।তাই সরকারী দলকে প্রতীক বরাদ্দের আগেই সঠিক তর্থ্য সংগ্রহ করেই প্রতীক বরাদ্দ করতে হবে।প্রার্থীর ঘোড়া দৌড় বা লবিংকে নয়, জনমতকে প্রাধান্য দিতে হবে।

    বাংলাদেশ সময়: ১২:৩৭ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ