• শিরোনাম

    আশ্বিনেও বন্যার ছোবল

    অনলাইন ডেস্ক | শনিবার, ০৩ অক্টোবর ২০২০ | পড়া হয়েছে 132 বার

    আশ্বিনেও বন্যার ছোবল
    apps

    আতাউর রহমান রাজু, উল্লাপাড়া থেকে: বর্ষাকাল শেষ হয়েছে দেড় মাসেরও বেশি আগে। এখন আশ্বিন মাস। তবু আবাদি মাঠ জুড়ে এখনো বন্যার পানি। আশ্বিনের এ বন্যায় নতুন করে ১৯৫ হেক্টরের বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি হয়েছে। আর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন এক হাজার ৫৭৫ জন কৃষক।

    বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এবারের বন্যা দীর্ঘমেয়াদি হয়েছে। এতে  প্রায় চার মাস ধরে মাঠের কাজে গ্রামের দিনমজুরদের চাহিদা নেই। বেশিরভাগ দিনমজুর এখন বেকার। এসব চিত্র সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার।

    এ উপজেলায় এবারের মৌসুমে আগেভাগেই বন্যার পানি আসে। আষাঢ়ের প্রথম দিকেই উপজেলার নিচু অঞ্চলের আবাদি মাঠগুলো বন্যার পানিতে তলিয়ে যায়। এরপর কয়েক দফায় বন্যার পানি বেড়ে উঁচু এলাকার সব মাঠ তলিয়ে দেয়। উপজেলার ১০ ইউনিয়নে আবাদি মাঠগুলো এখনো কমবেশি বন্যার পানিতে তলিয়ে। ইউনিয়নগুলো হলো উধুনিয়া, মোহনপুর, বড়পাঙ্গাসী, বাঙ্গালা, কয়ড়া, সলঙ্গা, পূর্ণিমাগাতী, উল্লাপাড়া, দুর্গানগর, সলপ।

    কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলায় ৯ হাজার ১২৫ হেক্টর পরিমাণ জমিতে রোপা আমনের আবাদ হয়েছে। এ ধানের আবাদে গ্রামের দিনমজুরদের কিছুটা চাহিদা ছিল। তবে আশ্বিনের বন্যার পানি ফের এসব মাঠে উঠছে।

    সূত্র আরো জানায়, আশ্বিনের বন্যায় এরইমধ্যে রোপা আমন, শীতকালীন সবজি ও মাসকলাই মিলে ১৯৫ হেক্টরের ফসলের ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের সংখ্যা এক হাজার ৫৭৫ জন।

    উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুবর্ণা ইয়াসমিন সুমী জানান, তাঁর বিভাগ থেকে মাঠপর্যায়ে সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখা হচ্ছে।

    বাংলাদেশ সময়: ১০:২৫ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ০৩ অক্টোবর ২০২০

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ