• শিরোনাম

    আধুনিক বাংলাদেশ নির্মাণের জন্যে লড়াই করেছেন বঙ্গবন্ধু আলতাফ হোসেন ।

    নারগিস পারভীনঃ | মঙ্গলবার, ১১ জানুয়ারি ২০২২ | পড়া হয়েছে 10 বার

    আধুনিক বাংলাদেশ নির্মাণের জন্যে লড়াই করেছেন বঙ্গবন্ধু আলতাফ হোসেন ।
    apps

    বাঙ্গালির ইতিহাস ১০শে জানুয়ারী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে উত্তরা পশ্চিম থানা লীগের পক্ষ থেকে সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন উত্তরা পশ্চিম থানা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য আলতাফ হোসেন সরকার। একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন,বাঙালি জাতির এক মনীষী এস ওয়াজেদ আলি ‘ভবিষ্যৎর বাঙ্গালি’তে ইঙ্গিত করেছিলেন এই পূর্বদিগন্তে বাঙালি জাতির পরিত্রাণ কর্তা হিসেবে আসবেন এবং আমাদের মহান বিজয়ের মহানায়ক হবে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই যে সেই মহানায়ক যিনি আধুনিক বাংলাদেশ নির্মাণের জন্যে লড়াই করেছেন। বাঙালির দুঃখ-কষ্ট বুঝতে পারতেন বলেই তিনি বঙ্গবন্ধু উপাধিতে ভূষিত হয়েছিলো। বঙ্গবন্ধু জাতির কল্যাণের কথা শুধু চিন্তাই করেননি, সে অনুযায়ী আজীবন কাজও করে গেছেন। স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশকে আধুনিক ও উন্নত বিশ্বের একটি দেশে পরিণত করা। সেই লক্ষ্য নিয়ে নিরালস কাজ করে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধুর তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ আজ উন্নত বিশ্বের দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে সৃকৃতি লাভ করেছেন। খাদ্যেতে স্বয়ংসম্পূর্ণ সহ দেশের আনাচে কানাচে চোখে পড়ে অবকাঠামোর উন্নয়ন। মানবতার মা জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুদা ও দারিদ্র্য মুক্ত বাংলাদেশ গঠনের লক্ষে তরুণ সমাজের শিক্ষা ও জ্ঞান কাজে লাগিয়ে দেশের উন্নয়নের সাথে সাথে তৃণমূল আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী অঙ্গ সংগঠনকে শক্তি শালী করার লক্ষ্য যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন তা নজির বিহীন। এছাড়াও করোনার দুর্যোগ মোকাবেলায় সফল হাতে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন দেশের সাধারণ মানুষের জীবন বাঁচানোর লড়াইয়ে। জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রতি অবিচল আস্থা রেখে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক তথা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সবসময় সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করছেন এবং আগামীতেও কাজ করে যাবে ইনশাআল্লাহ। এটাই হোক বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার ৫০ বছরের বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবষের অঙ্গিকার।

    বাংলাদেশ সময়: ২:২৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১১ জানুয়ারি ২০২২

    dainikbanglarnabokantha.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ